নিরুপায় এলাকাবাসী এসে দাঁড়ালেন নদীর তীরে

|

নড়াইল প্রতিনিধি

প্রায় তিন মাস ধরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় নড়াইলের নড়াগাতি থানার জয়নগর ইউনিয়নের চরশুকতাইল ও চরজয়নগর এলাকায় মধুমতি নদীতে ভাঙন দেখা দিয়েছে। অব্যাহত নদী ভাঙনে পাটসহ প্রায় ২০ একর কৃষি জমি নদীগর্ভে চলে গেছে। এখন ওই এলাকার ৩০০ বাড়িঘর নদী ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

শেষ পর্যন্ত নিরুপায় এলাকাবাসী মধুমতি নদী থেকে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করে নদীর তীরে। শনিবার সকাল ১১ টার দিকে চরশুকতাইল এলাকায় মধুমতি নদীপাড়ে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিক্ষোভ মিছিলও অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন চৌধুরী, ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বকুল শেখ, নাসির শেখ, মনিরুল শেখ, মঞ্জু বেগম প্রমুখ।

গোপালগঞ্জের পিটু মোল্যা ও ফারুক সরদার তিনটি ড্রেজার মেশিন দিয়ে নড়াইলের চরশুকতাইল ও চরজয়নগর এলাকায় মধুমতি নদী থেকে বালু কেটে বিক্রি করছে। এতে কৃষি জমি নদী গর্ভে চলে গেছে। এখনই বালুকাটা বন্ধ না করলে এ এলাকার বাড়িঘরও নদী গর্ভে চলে যাবে বলে আশংকা প্রকাশ করেন তারা।

এদিকে অভিযুক্ত পিটু মোল্যা জানান, জিল্লুর রহমান নদী থেকে বালু কাটছেন। আমরা তা কিনে নিচ্ছি। এ ব্যাপারে জিল্লুর রহমান বলেন, খাসমহল থেকে নিয়মনীতি মেনে বালুকাটা হচ্ছে। এতে কৃষি জমি নদীগর্ভে চলে যাচ্ছে, বাড়িঘরও হুমকির মুখে রয়েছে; এ পরিস্থিতিতে বালুকাটা বন্ধ করবেন কিনা? এ প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান জিল্লুর রহমান।









Leave a reply