আসামি না ছাড়ায় পুলিশকে মারধর আওয়ামী লীগ নেতার

|

ময়মনসিংহ ব্যুরো

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মাদক মামলার আসামি ছাড়াতে না পেরে থানার ভিতরেই পুলিশকে মারধর করেছে এক আওয়ামী লীগ নেতা। পরে সেই নেতা গৌরীপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকনুজ্জামান পল্লবকে আটক করেছে পুলিশ।

ময়মনসিংহ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাকের হোসেন সিদ্দিকি জানান, শুক্রবার রাতে তিন মাদকসেবীকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশ। শনিবার সকালে তাদের ছাড়াতে আসেন গৌরীপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকনুজ্জামান পল্লব। এসময় তার কথা মেনে আসামি না ছাড়ায় গৌরীপুর থানায় কর্তব্যরত এসআই হাসানুজ্জামানের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে পল্লব তাকে মারতে শুরু করেন। চড় থাপ্পর মারতে মারতে কলারে ধরে টেনে থানার ভেতর থেকে বাইরে নিয়ে যেতে থাকে। এসময় অন্য পুলিশ সদস্যরা বাধা দিয়ে তাকে উদ্ধার করে। সাথে সাথে এসআইকে মারধর করার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়।

তার বিরুদ্ধে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তাকে মারধর ও সরকারি কাজে বাধাদানের অপরাধে মামলা দেয়া হচ্ছে।

এব্যাপারে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল মোবাইলে যমুনা নিউজকে বলেন, ঘটনাটি তিনি জানেন না। তবে যদি কেউ দলীয় পরিচয়কে ব্যবহার করে অপরাধ করে থেকে থাকে তাহলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়া হোক।









Leave a reply