হারানোর কিছু ছিল না, পাওয়ার ছিল: সালমা

|

অনন্য। অসাধারণ। বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের পারফরম্যান্সকে আপনি কী বলবেন? এশিয়ান ক্রিকেটে অন্যতম পরাক্রমশালী দলকে হারিয়ে দেশের ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম বড় ধরনের শিরোপা নিয়ে আসলো তারা। এশিয়া কাপের গত ছয় আসরের চ্যাম্পিয়ন ছিল ভারত। পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার মতো দলকে হেসে খেলে হারিয়ে দিতে ওস্তাদ তারা। এ দলগুলোর হিসেবের খাতায় বাংলাদেশকে নিয়ে সমীকরণটা ছিল সহজ- খেলো, জিতো। কিন্তু সব হিসেব উল্টে দিলো সালমা খাতুনের দল।

এশিয়া কাপের আগেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ধবল ধোলাই হয়েছিল সালমা খাতুনের দল। মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে তেমন কোনো প্রত্যাশা ছিলো না সালমাদের কাছে। সেটিকেই শক্তির জায়গা বানিয়ে ফেললেন সালমা-জাহানারা-রুমানারা। সেই স্বাধীনতাই তাদের স্বপ্নপূরণে সহায়ক হয়েছে। এশিয়া কাপের হট ফেবারিট ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

অধিনায়ক সালমা খাতুন সরাসরিই বলে দিলেন, টুর্নামেন্টে আমাদের হারানোর কিছু ছিল না। ভারতের হারানোর ভয় ছিল। এখানে আমাদের অনেক কিছুই পাওয়ার ছিল। শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের স্বপ্ন পূরণ করতে সক্ষম হয়েছি।

অথচ, এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৬৩ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ, ম্যাচ হারে ৬ উইকেটে। সেই অবস্থা থেকে সফলভাবেই ঘুরে দাঁড়ায় সালমা খাতুনের নেতৃত্বাধীন দলটি।

সালমা জানান, টুর্নামেন্টে আমাদের শুরুটা ভালো হয়নি। তবে পরের ম্যাচগুলোতে আমরা ভালোভাবেই ঘুড়ে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছি। ফাইনালে শিরোপা জিতে আমরা খুব খুশি। আমাদের এখন একটাই লক্ষ্য এই পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখা।

সালমার মতো প্রত্যাশা এখন সারা জাতিরই। আজকের পর থেকে নারী ক্রিকেট দল নিয়ে সবার বাড়তি আগ্রহ থাকবে তা বলাই বাহুল্য। পাশাপাশি, এমন সাফল্যে নারী ক্রিকেট দলের বেতন বৈষম্য কমে আসবে এটাও আশা করা যেতে পারে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply