নাস্তিকদের থেকে ধর্মপ্রাণ মানুষেরা ৪ বছর বেশি বাঁচেন

|

নতুন গবেষণায় দেখা গেছে বেশি বা কম দিন বেঁচে থাকার সাথে ধর্ম পালন ও বিশ্বাসের সংযোগ রয়েছে।  আস্তিকরা ৪ বছর বেশি বেঁচে থাকেন নাস্তিকদের থেকে। এমনটাই জানালেন ওহিও স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। তারা ২০১১ সাল থেকে ১ হাজার মানুষের ওপর গবেষণা করে এ তথ্য জানান।

গবেষণা প্রধান লরা ওয়ালেস বলেন, ধর্ম পালনের মধ্যে এমন অনেক সুবিধা আছে যা বিশ্লেষণ করা যায় না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইকোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. বাল্ডিন ওয়ে বলেন, এই গবেষণার তথ্য হয়তো নাস্তিকদের কাছে বাজে কথা মনে হতে পারে। তবে ধর্ম পালনের সাথে যে বেশি আয়ুর সম্পর্ক রয়েছে তা তারা উড়িয়ে দিতে পারেনা। কেননা এখানে বোধগম্য প্রমাণ দেয়া হয়েছে যে, ধর্মপ্রাণ মানুষেরা দীর্ঘজীবী হয়ে থাকে।

তবে এর আগেও এ নিয়ে গবেষণা চালানো হয়। ২০১২ সালে ৫০৫ জনের ওপর চালানো এক গবেষণায় দেখা গেছে, একজন ধর্মপালন কারী প্রায় ১০ বছর বেশি বাঁচেন একজন নাস্তিকের থেকে।

২০১০ সালের থেকে ২০১১ সালের আগস্ট পর্যন্ত আমেরিকার ৪২টি শহরের ১ হাজার ৯৫ জনের ওপর চালানো অপর এক গবেষণায় দেখা যায় যে, নাস্তিকের থেকে একজন আস্তিক প্রায় ৬ বছর বেশি বেঁচে থাকেন।

এমনকি অনেক গবেষণায় দেখা গেছে শুধু ধর্মপালন নয় যারা সমাজ সেবামূলক কাজও করেন তারাও দীর্ঘজীবী হয়ে থাকেন।

কেনো ধর্মপালনকারীরা বেশিদিন বাঁচেন এ বিষয়ে  ড. বাল্ডিন ওয়ে বলেন, ধর্মের অনেকগুলো নীতি ও আচরণ এই জন্য কাজ করে। ধর্মের বেশিরভাগ আচরণ স্বাস্থ্যসম্মত, যেমন অ্যালকোহল থেকে দূরে থাকা, যৌন আচরণে সংযত থাকা। এছাড়া ধর্মীয় আচার আচরণ পালন করলে স্নায়ুচাপ সহজে নেয়া যায় যা স্বাস্থের জন্য ভালো। যেমন ইবাদত করা হতাশা মুক্ত রাখতে সহযোগিতা করে।

টিবিজেড/

 

 









Leave a reply