রাস্তার দুপাশে গাছ লাগিয়ে বিয়ের উৎসব

|

বিয়ের উৎসব উদযাপনে কতো কি আয়োজন করা হয়। কিন্তু গাছ লাগিয়ে বিয়ের উদযাপন একটু অবাক করারই মতো। তেমনি এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের শালবনীর মধুপুর গ্রামে।

জানা যায়, সমীর দেবসিংহের সাথে ঝাড়গ্রামের বাঁকশোলের দীপিকা বিয়ে হয়। কিন্তু সমীরের বাবা-মা কেউ বেঁচে নেই। জঙ্গলমহলের অশান্ত পরিস্থিতিতে মাওবাদীদের হাতে খুন হন সমীরের বাবা। আর মা অপহরণ হওয়ার পর থেকে নিখোঁজ। তাই সমীর শান্তির বাণী ছড়িয়ে দেয়ার জন্য ও সাথে সাথে বাবা মাকে স্মরণ করার জন্য মধুপুর ও মেমুল গ্রামের মধ্যবর্তী অংশটুকুতে রাস্তার দু’পাশে প্রায় দুশোর মতো গাছ লাগান। আর এর মাধ্যেমেই তাদের বিয়ের উৎসব উদযাপন করেন।

সমীর বলেন, “আমি নিছক বিয়ের অনুষ্ঠানে আনন্দফুর্তি করতে চাইনি। আমি চেয়েছিলাম কিছু না কিছু সামাজিক কাজ করতে। রক্তদান শিবির করারও ইচ্ছে ছিল, বিভিন্ন কারণে যদিও সেটা সম্ভব হয়নি। আসলে আমি চাই, আমার বাবা-মা এই সামাজিক কাজকর্মের মধ্যেই বেঁচে থাক। সব কাজ আমার বাবা-মায়ের স্মৃতির উদ্দেশেই নিবেদন করেছি।”

অপর দিকে নববধূ দীপিকা বলেন, “আমাদের বিয়েটা সুন্দর একটা কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যাওয়ায় আমার বেশ ভালো লাগছে।

এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন গ্রামবাসী ও বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথিরা।









Leave a reply