বিশ্বকাপের চাকচিক্যের আড়ালে পুতিন প্রশাসনের সংকট ধামাচাপার চেষ্টা!

|

ফুটবল বিশ্বকাপের চাকচিক্যের আড়ালে অভ্যন্তরীণ সংকট ধামাচাপা দিতে চাচ্ছে পুতিন প্রশাসন। রাশিয়ার বিরোধী দল ও মানবাধিকার সংস্থাগুলো এমন অভিযোগ করেছে।

বিশ্বকাপে চলাকালীন সময়েই অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধি, ভ্যাট এবং অনলাইনে কেনাবেঁচার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত শুল্ক আরোপের বিরুদ্ধে মাঠে নামার কথা ছিলো বিরোধী পক্ষগুলোর। সদ্য কারামুক্ত বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি জুলাই মাসের ১ তারিখ থেকে বিক্ষোভ-প্রতিবাদের ঘোষণা দিয়েছিলেন। খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না এমন ২০টি শহরে সমাবেশের অনুমতি চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের জারি করা ডিক্রি অনুসারে- বিশ্বকাপ চলাকালে সমর্থক ছাড়া রাশিয়ার রাস্তায় কেউ সমাবেশ করতে পারবে না। এ নির্দেশনা লঙ্ঘন করলে জরিমানার পাশাপাশি কারাভোগও করতে হবে।

এদিকে, বিশ্বকাপ উপলক্ষে রাশিয়ার রাজবন্দিদের মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থা- হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

সংস্থাটির রাশিয়া প্রকল্প পরিচালক তানিয়া লোকশিনা বলেন, বিশ্বকাপের জমকালো আয়োজন উপভোগে যারা রাশিয়া এসেছে তারা দেশটির স্বরূপ দেখেনি। সাম্প্রতিক ইতিহাসের সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে রাশিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি। সোচিতে শীতকালীন অলিম্পিকের আগে, অনেক রাজবন্দি ও মানবাধিকার কর্মীদের মুক্তি দিয়েছিলো পুতিন প্রশাসন। আশা করবো, ফুটবল বিশ্বকাপ আসর উপলক্ষেও আসবে এমন দৃষ্টান্তমূলক ঘোষণা।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply