শৈলকুপায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০, বাড়ি-ঘর ভাঙচুর

|


ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

সামাজিক অাধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় ভাঙচুর করা হয়েছে ৭টি বাড়ি-ঘর। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার রয়েড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় সংঘর্ষে আফজাল (৪৫), আফান (৩৫), দুলাল (২৫), আজাহার (৪৫), সাইদুল ইসলামের স্ত্রী মঞ্জুরা (২৯) ও দুলালের স্ত্রী রুপিয়া (৫০) সহ অন্তত ১০ জন আহত হয়। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ওই গ্রামের জমির, আতিয়ার, বাবলু, জাফর, দবির, মান্নান ও নুর ইসলামের বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদি জানান, দীর্ঘদিন ধরে উমেদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা সাব্দার হোসেন মোল্লা এবং জাতীয় পার্টির (জাপা) সমর্থিত পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজানুর রহমান বাবুলের সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

গত শুক্রবার মিজানুর রহমান বাবুলের সমর্থক রয়েড়া দক্ষিণ পাড়া গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তি সাব্দার হোসেন মোল্যার গ্রুপে যোগদান করে। এ ঘটনার পর থেকে ওই গ্রামে উত্তেজনা চলে আসছিল।

এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার সকালে রয়েড়া গ্রামে উভয় গ্রুপের লোকজন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।









Leave a reply