মেশিনের মাপের পার্থক্যের কারণে স্বর্ণ পরিমাপে পার্থক্য

|

বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রক্ষিত স্বর্ণ হেরফের হওয়ার কোন সুযোগ নেই। ভল্ট সুরক্ষিত, এখানে ফাঁকফোকরের অবকাশ নেই। একটি জাতীয় দৈনিকে ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে ভুতুড়ে কাণ্ড’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের ব্যাখ্যায় এমন দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র এস এম রবিউল হাসান।

মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে রাজস্ব বোর্ডের মেশিনের মাপের পার্থক্য আছে। তাই ভল্টের স্বর্ণ পরিমাপে পার্থক্য হয়েছে।

মুখপাত্র জানান, যে রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে, সেটি শুল্ক গোয়েন্দাদের নিজস্ব রিপোর্ট। তা নিয়ে সন্দেহ আছে। তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে ভল্টে রক্ষিত স্বর্ণ পরীক্ষার আবেদন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এস এম রবিউল হাসান জানান, ম্যানুয়াল মাধ্যমে স্বর্ণ পরীক্ষা করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ভল্টে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আছে। ভল্ট থেকে ইচ্ছাকৃত কেউ স্বর্ণ বের করতে পারে না বলেও দাবি করেন তিনি।









Leave a reply