জাতিসংঘ প্রতিনিধিদের আটকে দিলো মিয়ানমার

|

রাখাইনে রোহিঙ্গা দমন-পীড়ন নিয়ে মিয়ানমার সরকারের ঔদ্ধত্য সব সীমা ছাড়িয়েছে। রোহিঙ্গারা যখন সেখানে জাতিগত নিধন ও গণহত্যার শিকার হচ্ছে তখন নির্বিকারভাবে মিথ্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে সু চি সরকার। একদিকে তারা দাবি করছে, সব অভিযোগ মিথ্যা। আবার সংঘাতপূর্ণ এলাকায় তারা কাউকে যেতেও দিচ্ছে না।

জাতিসংঘের একটি প্রতিনিধি দলের আজ ২৮ সেপ্টেম্বর রাখাইনের সহিংসতাপূর্ণ এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে, নেইপিদো জানিয়েছে, সেখানে যাওয়া যাবে না। সফর বাতিল।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি এবং দেশটির বিরুদ্ধে সম্ভাব্য পদক্ষেপ গ্রহণে নিরাপত্তা পরিষদ যখন বৈঠকে বসছে, সেই সময় মিয়ানমারের এমন অবস্থান সু চি সরকারের চরম ধৃষ্টতারই আরেক উদাহরণ।

জাতিসংঘের মুখপাত্র স্তেফানে দুজাররিচ সফর বাতিলের খবর জানিয়ে বলেন, এমন সিদ্ধান্তের জন্য কোন কারণও উল্লেখ করেনি নেইপিদো।

গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গাদের ওপর নতুন করে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিপীড়ন শুরু হওয়ার পরপরই, নিরাপত্তার অজুহাত তুলে রাখাইন থেকে বের করে দেয়া হয় জাতিসংঘ ত্রাণ কর্মীদের। এক মাসে এটাই হতো অঞ্চলটিতে শীর্ষ জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের প্রথম সফর।









Leave a reply