ভাত দিতে দেরি; ছেলের হাতে মা খুন

|

ময়মনসিংহ ব্যুরো:

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের পাগলাদীপ গ্রামে ছেলের হাতে সৎ মা খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকালে ছেলে ভাত খেতে চেয়ে দিতে দেরি হওয়ায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় পুলিশ ছেলেকে আটক করে।

আটককৃত ছেলে হলো- রইছ উদ্দিন। মৃত মায়ের নাম শুক্কুরী বেগম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালবেলা মায়ের কাছে ভাত খেতে চায় রইছ। এসময় মা শুক্কুরী বেগম ছেলেকে বলেন কোন রোজগার না করে শুধু খাওয়া। এভাবে কতদিন চলবে। কামাই রোজগার না করলে কোন খাবার দেয়া হবে না। শুরু হয় বাক-বিতণ্ডা। এসময় খাবার দিতে দেরিও হচ্ছিলো। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রান্না ঘরে থাকা বটি দিয়ে মায়ের ঘাড়ে এলোপাথাড়ি কোপানো শুরু করে ছেলে রইছ উদ্দিন।

প্রতিবেশীরা টের পেয়ে এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় রইছ উদ্দিন। এসময় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার মায়ের। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আটক করে ঘাতক ছেলে রইছ উদ্দিনকে বলেও জানান তারা।

গফরগাঁও পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোকলেসুর রহমান আকন্দ জানান, ভাত খেতে চাওয়ার ঘটনা নিয়ে হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে বলে স্থানীয়দের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। আসামি রইছ উদ্দিনের বাবা আব্দুল মতিন মারা গেছেন আগেই। শুক্কুরী বেগম তার সৎ মা।

পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার ও হত্যাকারীকে আটক করে। এঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply