সার্জেন্টের ধাওয়া খেয়ে ট্রাকের ধাক্কায় মোটর সাইকেল চালক নিহত

|

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে ট্রাফিক সার্জেন্টের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে এক মোটর সাইকেল চালক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় রানা (১৯) নামে একজন আহত হয়। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সোনাহাট ডিগ্রি কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেল চালকের নাম খায়রুল ইসলাম খোকন(২৫)। সে শিলখুড়ি ইউনিয়নের জামাল উদ্দিনের পুত্র। তিনি উপজেলার শিলখুড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। আহত রানা তিলাই ইউনিয়নের উত্তর ছাটগোপালপুরের আইয়ুব আলীর পুত্র।


এ ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা ট্রাফিক সার্জেন্টের মোটরসাইকেলসহ ভূরুঙ্গামারী থানা পুলিশর ভ্যান পুড়িয়ে দেয়। ঘটনাস্থলে বিজিবি অবস্থান করছে। বিক্ষিপ্ত জনতার সঙ্গে বিজিবির কয়েক দফা ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বিক্ষুদ্ধ জনতা কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে সোনাহাট ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখে। অবরুদ্ধ পুলিশ সদস্যরা হলো, ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমান, সহকারী ট্রাফিক ইন্সপেক্টর রেজাউল ও কনস্টেবল বিকাশ। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


সোনাহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান আলী মোল্লা জানান, ঘটনার পর থেকে স্থানীয়রা বিক্ষোভ করছে।

ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির জানান, ভুরুঙ্গামারী থানার ইউএনও মাগফুরুল ইসলাম আব্বাসি ঘটনাস্থলে এসে তাদের শান্ত করার চেষ্টা করছেন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।









Leave a reply