ইউএনওকে প্রত্যাহারের দাবিতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বিক্ষোভ মিছিল

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুন নাহারকে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে স্থানীয় নেতাকর্মীরা।

আজ শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে মিছিল শুরু করে উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নেতাকর্মীরা। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে সমাবেশ করে তারা। এসময় নেতাকর্মীরা “ইউএনও তুই রাজাকার এই মুহূর্তে চরভদ্রাসন ছাড়” এমন শ্লোগান দেয়।

এ সময় সাধারণ সম্পাদক ও উপস্থিত অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ইউএনওকে স্বেচ্ছায় চরভদ্রাসন উপজেলা ছেড়ে যেতে বলেন। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারিও দেন তারা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাউসার হোসেন বলেন, ‘বর্তমান ইউএনও উপজেলায় যোগদানের পর থেকেই স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের কৌশলে বাদ দিয়ে তার মনমত জামায়াত, বিএনপি’র সদস্যদের নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় দিবসসহ সরকারি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছেন। সম্প্রতি ৬ আগষ্ট সোমবার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে এক প্রস্তুতি সভা করেন। যেখানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ অঙ্গ সংগঠনের কাউকে কোন দাওয়াত পত্র দেয়া হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘ইউএনও কখন বেলা এগারোটার আগে অফিসে না আসায় ভোগান্তির শিকার হচ্ছে চরভদ্রাসনের সাধারণ মানুষ। এমনকি তিনি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রওশন আরার কাছ থেকে উৎকোচ না পেয়ে তার ঘর ভেঙে দিয়েছেন। নদী ভাঙনের জিও ব্যাগের ডাম্পিং কাজে বিএনপি নেতা ওবাইদুল বারী দীপুকে নিম্নমানের বালু সরবরাহের সুযোগ দিয়ে অবৈধ সুযোগ নিয়েছেন ইউএনও।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন নাহার সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবী করে বলেন, প্রতিটি অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নামে চিঠি ইস্যু করা হয়। এখন কেউ যদি দলে না থাকে তাহলে সেই বিষয়টি তো আমাদের অফিসিয়ালভাবে জানাতে হবে। তা না হলে আমরা কি করে জানবো কে দলে নেই।

আওয়ামী লীগ নেত্রীর ঘর ভাঙা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ওই জায়গাটি সরকারি খাস জমি। প্রশাসন শুধুমাত্র সরকারি জায়গা দখল মুক্ত করেছে।

বিক্ষোভ মিছিলে জেলা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম বাসু, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আজাদ খান, সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শফিউদ্দীন খালাশী, যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. দীপু খালাশীসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

যমুনা অনলাইন: কেআর









Leave a reply