ভারতীয় ক্রিকেটে সমালোচনার ঝড়, তোপের মুখে শাস্ত্রী

|

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে রীতিমতো নাকানি চুবানি খাচ্ছে ভিরাট কোহলির ভারত! এজবাস্টনে তাও অধিনায়কের ব্যাটে কিছুটা হলেও মান বাঁচিয়েছিল তারা। কিন্তু লর্ডসে জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের সুইংয়ের সামনে রীতিমতো অসহায় দেখালো ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের। ফলাফল, ভিরাট কোহলির অধিনায়কত্বে প্রথমবারের মতো ইনিংস পরাজয়।

গোটা ভারত জুড়েই এখন সমালোচনার মুখে কোহলিরা। টাইমস অব ইন্ডিয়ার শিরোনামে তো তাদের লর্ডসের ভিখারিই বলে অভিহিত করা হলো। সবচেয়ে বেশি তোপের মুখে পড়েছেন কোচ রবি শাস্ত্রী।

ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত লর্ডসে এমন হারের পর রবি শাস্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় রবি শাস্ত্রীর কড়া সমালোচনা করেন বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা। আর সমর্থকরা বলছেন, গ্রেগ চ্যাপেলের থেকেও বিপজ্জনক কোচ শাস্ত্রী। তাকে বিদায় করার দাবি জানিয়েছেন তারা। সেই ভাবনা ক্রিকেট বোর্ডকেও তাড়িত করছে।

ভারতীয় অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা টুইটারে লিখেছেন, এই ভারতীয় দল থেকে যদি কাউকে ছাঁটাই করা হয়, তাহলে প্রথম ব্যাক্তিটি যেন হন রবি শাস্ত্রী। অনিল কুম্বলেকে মিস করি আমরা।

এমন অবস্থায় প্রতিক্রিয়া না জানিয়ে বসে থাকতে পারেননি ঠাণ্ডা মাথার কুম্বলেও। ভিরাট কোহলির বিধ্বস্ত ছবি শেয়ার করে ভারতের সাবেক কোচ ও কিংবদন্তি লেগ স্পিনার লিখেছেন, যখন তোমরা অনিল কুম্বলের বদলে শাস্ত্রীকেই বেছে নাও।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারের পর ভারতের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান কুম্বলে। জোর গুঞ্জন উঠেছিল অধিনায়ক কোহলির সঙ্গে মতপার্থক্যের জেরেই এ পদত্যাগ। পরে ভিরাটের পছন্দের শাস্ত্রীকে বেছে নেয় শচীন-সৌরভ-লক্ষ্ণণের ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি।

এদিকে, শাস্ত্রীর অধীনে দলের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট নয় বিসিসিআই। সংস্থাটির এক কর্তা বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন, রবি শাস্ত্রী ও দলের বর্তমান কোচিং স্টাফের অধীনে আমরা ২০১৪-১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে হেরেছিলাম। গত বছর হেরেছি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। দুটিই ছিল বড় টেস্ট সিরিজ। এখন আমরা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গভীর সংকটে।

বিসিসিআইয়ের অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি ইতিমধ্যেই শাস্ত্রীর কাছে নাকি একটি বার্তাও পাঠিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ইংল্যান্ডে ভারতীয় দল যা খেলেছে, সেটি কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply