বিসিবি’র বর্তমান কমিটিকে সাবেরের চ্যালেঞ্জ

|

আদালতের রায়ের পর বিসিবির বর্তমান গঠনতন্ত্র বৈধ না অবৈধ, সে বিষয়ে সরাসরি আলোচনায় বসতে বর্তমান বোর্ডকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন সাবের হোসেন চৌধুরী। বার্ষিক সাধারণ সভার বৈধতা নেই দাবি করে তিনি আগামীকালের সভা বয়কটেরও ঘোষণা দেন। এদিকে, সমালোচনার জবাব দিয়েছেন বিসিবির প্রভাবশালী কর্মকর্তা মাহবুব আনাম। সরকারি হস্তক্ষেপ কমাতে আদালতের নির্দেশেই গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন আনবে বিসিবি, জানিয়েছেন তিনি।

বিসিবির বার্ষিক সাধারণ সভার একদিন আগে ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট প্রশাসন কোন পথে’ এই শিরোনামে সংবাদ সম্মেলন করেন বিসিবির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান কাউন্সিলর সাবের হোসেন চৌধুরী।

তিনি বলেন, আমার দুটো প্রশ্ন: বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ কি মনে করে এই কমিটি বৈধ? সরকারের হস্তক্ষেপ মুক্ত বিসিবি গড়তে চায় কিনা বর্তমান কমিটি?

আদালতের রায়ের পর বর্তমান গঠনতন্ত্রের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সাবের হোসেন চৌধুরী। বলেন, আমার কাছে মনে হয়েছে, আমি আর কাউন্সিলর হওয়ার যোগ্য নই। আমি বোর্ডকে চিঠি দিয়ে বলেছি, আমার নামটা সরিয়ে নিতে চাই। গঠনতন্ত্র অবৈধ হলে সেটির অধীনে হওয়া কাজগুলোর বৈধতা থাকে না।

অন্যদিকে আইন মেনে চলার কথা জানিয়েছে বোর্ড।  বিসিবি সহ-সভাপতি মাহবুব আনাম বলেন, এনএসসির হস্তক্ষেপ কমাতে আদালতের রায় মেনে গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করা হবে এজিএম-এ।

ক্রিকেটে সাফল্যের কথা স্বীকার করছে দু’পক্ষ। সরকারের হস্তক্ষেপ দূরে রাখতে যেকোনো আলোচনায় বসতে চান সাবের হোসেন। তবে, বার্ষিক সাধারণ সভা কেন চার বছর পর করা হচ্ছে সে প্রশ্ন তোলেন সাবের হোসেন।

ক’দিন আগেই “ক্রিকেটকে পিছিয়ে দিতে ষড়যন্ত্র করছেন সাবের”, নাজমুল হাসানের এমন বক্তব্যে প্রেক্ষিতে অবশ্য মন্তব্য করতে চাননি সাবের হোসেন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ

 









Leave a reply