অমুসলিমের হামলার দায়ও নিচ্ছে আইএস!

|

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসের একটি ক্যাসিনো থেকে উন্মুক্ত কনসার্টের ওপর নির্বিচারে গুলি চালিয়ে ৫০ জনের বেশি মানুষকে হত্যা করার ‘দায় স্বীকার’ করেছে জঙ্গি গোষ্ঠি আইএস।

আইএসের প্রোপাগান্ডামূলক বার্তা সংস্থা আমাক-এর বরাতে ব্রিটেনের দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানিয়েছে, হামলাকারী স্টিফেন প্যাডককে নাকি কিছুদিন আগেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে! তবে ঘোষণায় আইএস এর এমন দাবির পক্ষে কোন তথ্য প্রমান দেয়া হয়নি।

তবে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই বলছে, আইএসের দাবি ভিত্তিহীন। ঘটনার সাথে জঙ্গিগোষ্ঠিটির কোন যোগসূত্র নেই। পুলিশের দেয়া তথ্য অনুযায়ী প্যাডক একজন খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী এবং তার বিরুদ্ধে আগে থেকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আছে।

ওদিকে আইএসের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘প্যাডক ইসলামিক স্টেটের একজন সৈনিক। সে মিত্র (যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য) দেশগুলোর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামতে আইএসের আহ্বানে সাড়া দিয়ে এ কাজ করেছে।’ অবশ্য আইএসের এমন দাবিকে যে আর কেই পাত্তা দিচ্ছে না তা ইন্ডিপেন্ডেন্টের ওই নিউজেই ধরা পড়েছে। এক পাঠক মন্তব্য করেন, “চলতি মৌসুমে নরউইচ সিটি ফুটবল ক্লাবের বাজে পারফরমেন্সের দায়ও আইএস চাইলে নিতে পারে”।

অতীতে বিভিন্ন হামলার পরপরই দ্রুত দায়ী স্বীকারের প্রবণতা আইএসের মধ্যে দেখা গেছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার একজন অমুসলিমের হামলার ‘কৃতিত্ব’ও নিতে চাইছে শক্তির দিক থেকে ক্রমেই দুর্বল হয়ে পড়া সংগঠনটি।

লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, কনসার্টের পাশের একটি ক্যাসিনোর ৩২ তলা থেকে নিচের দিকে গুলি করেন প্যাডক। নিহত ওই সন্দেহভাজন একজন স্থানীয় বাসিন্দা জানিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, মান্দালয় বে ক্যাসিনোর ৩২ তলা থেকেই পাশের খোলা জায়গায় কনসার্টে জড়ো হওয়া মানুষের ওপর অস্ত্রের গুলি চালানো হয়।

 

 









Leave a reply