নেপালকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে সাফের ফাইনালে মালদ্বীপ

|

পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো খেলে হারার পরও স্বাগতিক বাংলাদেশকে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে উঠেছিল নেপাল। দারুণ ছন্দেও ছিল দলটি। অন্যদিকে, কোচ পিটার সেগরেটের সাথে খেলোয়াড়দের দ্বন্দ্বে মালদ্বীপ দলে বিদ্রোহের আগুন। কিন্তু, ফুটবল শেষ পর্যন্ত মাঠের খেলা আর সেখানে ‘হিমালয় কন্যা’ নেপালকে রীতিমত উড়িয়ে দিয়ে সাফের ফাইনালে উঠে গেল দ্বীপ রাষ্ট্র মালদ্বীপ।

বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথম সেমিফাইনালে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে মালদ্বীপ। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপখ্যাত টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠল তারা।

প্রথমার্ধের শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে প্রথমবারের মতো সাফের ফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন দেখা নেপাল। কিন্তু ম্যাচের নবম মিনিটে পাল্টা আক্রমণ থেকে গোল করেন মালদ্বীপ। গেলদাতা আকরাম আব্দুল ঘানি। পিছিয়ে পড়ে আক্রমণের গতি বাড়ায় নেপাল। মহুর্মুহু আক্রমণে প্রতিপক্ষকে ব্যতিব্যস্ত রাখে দলটি। তবে গোল আদায় করে নিতে পারেননি তার। ১-০ গোলে পিছিয়ে বিরতিতে যায় তারা।

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফেরার প্রাণপণ চেষ্টা করে নেপাল। কিন্তু, সাফল্য তো মিলেইনি উল্টো এর অল অ্যাটাকের খেসারত হিসেবে আরও ২ গোল খেয়ে বসে তারা। ম্যাচের শেষ দিকে মিনিট দুয়েকের ব্যবধানে এই ২ গোল।

৮৪ মিনিটে ডি বক্সে বল পেয়ে দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে নিশানাভেদ করেন ইব্রাহিম ওয়াহিদ। ৮৬ মিনিটে আবারও একইভাবে গোল আদায় করেন তিনি। নেপালিদের আক্ষেপ ছাপিয়ে মালদ্বীপের বিজয়োল্লাসই ফুটে উঠেছিল বেশি। পঞ্চম ফাইনাল বলে কথা!

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply