ছাত্রলীগ কর্মীদের বিচারের দাবিতে জাবির সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

|

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের দুই শিক্ষার্থী ও এক বহিরাগত ফটো সাংবাদিককে মারধর ও লাঞ্ছিত করার ঘটনার প্রতিবাদে ছাত্রলীগ কর্মীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় জাবি সাংস্কৃতিক জোট, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জাবি শাখাসহ আরো কয়েকটি বিভাগের শিক্ষার্থীরা সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

সাংবাদিকতা বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একটা দীর্ঘ সময় ধরে বিচারহীনতার সংস্কৃতি তৈরি করছে। যার ভেতর দিয়ে এ ধরনের ঘটনাকে উৎসাহিত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। নইলে এমন ঘটনা ভবিষ্যতে আরো ঘটবে।”

প্রসঙ্গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়র সুইমিংপুল সংলগ্ন এলাকায় বহিরাগত এক আলাকচিত্রী এবং তার সঙ্গে থাকা মেয়ে বান্ধবীকে কতিপয় ছাত্রলীগকর্মীর ছিনতাইয়ের হাত থেকে রক্ষা করেন বিশ্ববিদ্যালয়র সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মাহমুদুল হক সোহাগ।

পরবর্তীতে এই ছাত্রলীগ কর্মীরাই সংগঠিত হয় শারীরিক শিক্ষা ভবনের সামনে। এসময় সোহাগ এবং তার সাথে থাকা একই বিভাগের আরেক নারী শিক্ষার্থীকে মারধর এবং লাঞ্ছিত করে তারা।

পরে ভুক্তভোগীরা নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী নিলয়, বাংলা বিভাগের ৪৫ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী শুভাশীষ ঘোষ, লোকপ্রশাসন বিভাগের ৪৭ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সোহেল রানা ও ইয়া-রাফিউ শিকদার আপনের নামসহ অজ্ঞাতনামা ৮-১০ জন ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বরাবর লিখিত অভিযোগপত্র দায়ের করে।

উল্লেখ্য, অভিযুক্তরা সবাই শহীদ রফিক জবার হলের আবাসিক ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চলের অনুসারী।









Leave a reply