জাকারবার্গের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হচ্ছে না আজ!

|

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের অ্যাকাউন্টই গায়েব করে দেবেন তিনি। শুধু তাই নয়, পুরো প্রক্রিয়াটা লাইভ স্ট্রিমিং করে দেখাবেন গোটা বিশ্বকে। বলে কয়ে এমন হ্যাকিংয়ের ঘোষণায় গোটা প্রযুক্তি বিশ্ব নড়েচড়ে বসেছিলো। কার এমন স্পর্ধা! কে সেই ব্যক্তি?

গত বৃহস্পতিবার এমনই বোমা ফাটান তাইওয়ানের হ্যাকার চ্যাং চি ইউয়ান। ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ২৬ হাজার অনুসারীকে বলেন, রোববার সন্ধ্যায় হ্যাক করা হবে জাকারবার্গের অ্যাকাউন্ট। এরপর থেকেই সবার অধীর প্রতীক্ষা রোববারের জন্য। কী ঘটবে এদিন? সত্যিই ফেসবুক কি অ্যাকাউন্ট হারাবেন এর প্রতিষ্ঠাতা!

কিন্তু শেষমেষ সব উত্তেজনায় পানি ঢেলে দিলেন চি ইউয়ান। ২৪ বছর বয়সী হ্যাকার জানালেন, জাকারবার্গের অ্যাকাউন্ট হ্যাকে উদ্যোগ থেকে সরে এসেছেন তিনি। মার্কিন গণমাধ্যম ব্লুমবার্গকে দেয়া সাক্ষাতকারে ইউয়ান বলেন, বৃহস্পতিবারের ঘোষণা থেকে বিশ্বজুড়ে যে সাড়া পেয়েছেন, সেটার পরিপ্রেক্ষিতেই তার এই সিদ্ধান্ত।

চি ইউয়ান বলেন, “ফেসবুকের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় পাওয়া খুঁতটি প্রতিষ্ঠানটিকে জানিয়েছি। ফেসবুক শিগগিরই এর জন্য উপযুক্ত পুরস্কারও দেবে। তখনই প্রমাণ হয়ে যাবে, যে আমি আসলেই অ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে পারতাম কিনা।”

ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে চ্যাং চি ইউয়ান জানিয়েছেন, ফেসবুকের প্রধান নির্বাহীর ওপর আক্রমণের জেরে যে অহেতুক ঝামেলা পোহাতে হবে, সেটা আপাতত এড়াতে চাইছেন তিনি। বলেন, “অনেকেই আমার হ্যাকিংয়ের সক্ষমতা নিয়ে সন্দিহান হতে পারেন। কিন্তু তাদের ভুল প্রমাণ করতে জাকারবার্গের অ্যাকাউন্ট নিয়ে খেলা ঠিক হবে না।”

ফেসবুক-গুগলের মতো বড় বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের প্রোগ্রামে ত্রুটি খুঁজে বের করার জন্য পুরস্কারের ঘোষণা দিয়ে থাকেন। সেই পুরস্কারের আশায় যারা কাজ করে, তাদেরকেই বলে “বাগ বাউন্টি হান্টার”। চ্যাং চি ইউয়ানও নিজেকে এমন একজন হান্টার বলে দাবি করেন।

তাইওয়ানে মোটামুটি সেলিব্রিটির তকমা পাওয়া চ্যাং এর আগে দাবি করেন, তিনি অ্যাপল আর টেসলার মতো কোম্পানির সফটওয়্যারে ত্রুটি খুঁজে বের করে সেখানে হানা দিয়েছেন। যদিও সেসব দাবির পক্ষে জোরালো কোন তথ্য প্রমাণ দিতে পারেননি। তবে ৩ সেন্টের টিকিটের জন্য স্থানীয় এক বাস কোম্পানির সাইট হ্যাক করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

গ্রাহকের অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা ইস্যুতে বেশ কিছুদিন ধরেই তোপের মুখে ফেসবুক ও এর প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। চি ইউয়ান যখন জাকারবার্গের অ্যাকাউন্ট হ্যাকের ঘোষণা দিয়েছিলেন, তখন অনেকেই একে, সাধারণ ব্যবহারকারীর সাথে বিশ্বাসঘাতকার প্রতিশোধ হিসেবে ধরে নেন। তবে দুই দিন বাদেই সে অবস্থান থেকে সরে আসায়, এটা এখন অনেকটাই স্পষ্ট যে, নিছক খ্যাতির লোভেই এসব করেছেন ইউয়ান।









Leave a reply