ঝিনাইদহে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রতিমা কারিগররা

|

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারর্দীয় দূর্গা পূজা। আর মাত্র কয়েকদিন বাকি শারদীয়া দূর্গা পূজার। দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ঝিনাইদহ জেলার পূজা মন্ডপ গুলোতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রতিমা শিল্পীরা।

জেলার ৪৪৫ টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে। পূজা উৎসবকে পরিপূর্ণ রূপ দিতে মন্দির গুলোতে চলছে ব্যাপক সাজসজ্জা। ইতি মধ্যে বেশির ভাগ মন্ডপ গুলোতে প্রতিমার কাঠামো মাটির কাজ প্রায় শেষ। শুরু হয়েছে রং তুলি ও সাজসজ্জার কাজও। ৫ দিন ব্যাপী হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গা পূজা। বিভিন্ন স্থান থেকে আগত শিল্পীরা ঝিনাইদহে এসে প্রতিমা তৈরি ও রং তুলির কাজ করছেন।

প্রতিমার পাশাপাশি পূজাকে জাঁকজমকপূর্ণ করে তুলতে বাদ্যযন্ত্র ঠিক ও তৈরি করতে ব্যস্ত সময় পার করছে ঢাক-ঢোল ও বাঁশির কারিগররা। এ দিকে দেবীকে স্বাগত জানাতে আনন্দ-উৎসব বিরাজ করছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সব ধরনের শ্রেণি পেশার নারী-পুরুষের মধ্যে। সব মিলিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে ঝিনাইদহের প্রতিটি পূজা মন্ডপে।

ঝিনাইদহ সদরের শ্রী শ্রী সিদ্ধেশ্বরী মন্দিরের প্রতিমা শিল্পী সাতক্ষীরা থেকে আসা গণেষ বিশ্বাস বলেন, মাটির কাজ শেষে হলেই শুরু হবে রং তুলির আঁচড়। প্রতিমাগুলো মনোমুগ্ধকর ও নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তুলতে সর্বোচ্চ মনোযোগ দিয়ে কাজ করছি আমরা। ৮/১০ টি প্রতিমা আমরা তৈরি করে থাকি মৌসুমে একটু কষ্ট হয়। আশা করছি নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হবে প্রতিমা তৈরির কাজ।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক অমল বলেন, এবছর ৪৪৫ টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। আমরা শারদীয় দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে প্রায় সব ধরণের প্রস্ততি নিয়েছি। আনন্দঘন ও জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে পূজা শেষ হবে বলে তিনি আশা করছেন।









Leave a reply