‘নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি’

|

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ভোটে ডিজিটালাইজেশন তথা ইভিএম এর পক্ষে তার দল। অংশগ্রহণমুলক নির্বাচনের ব্যাপারে আশাবাদি। তবে কেউ না আসলেও ভোট হবে নির্ধারিত সময়েই। জাতিসংঘের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন।

লিখিত বক্তব্যে সফরের আলোচ্য বিষয় ও প্রস্তাবনার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় তিনটি সুপারিশ করেছেন তিনি।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মত, প্রযুক্তির অসৎ ব্যবহার ঠেকাতেই এ আইন। জঙ্গিদের ঠেকাতে বেশকিছু ধারার প্রয়োজন। অসৎ উদ্যেশ্য না থাকলে গণমাধ্যমের উদ্বেগের কারন নেই বলে আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী।

সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার সাম্প্রতিক বক্তব্য নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কারো সহায়তায় ক্ষমতায় আসেনি তার দল। জনগনের ভোটেই তার মূল ভরসা।

আগামী নির্বাচনের উদ্যেশ্যে যুক্তফ্রন্ট ও জোট গঠনকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ভোটের লড়াইয়ে সকল জোটের জন্যই সমান সুযোগ থাকবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডেল্টা প্ল্যান দিয়েছি। ৮১ বছরের প্ল্যানও দিয়েছি। নির্বাচন অবশ্যই হবে। কোন দল আসবে না তাদের বিষয়। আমি আশা করি এবার সব দল আসবে। গতবার আমার চেষ্টা ছিল। তখন তারা সাড়া দেয়নি। সেই নির্বাচন ঠেকাতে পুড়িয়ে মানুষ মেরেছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপিসহ অন্যান্য দল আগামী নির্বাচনে আসবে বলেই তার বিশ্বাস। তবে ভোট কারো অপেক্ষায় থাকবেনা বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

নির্বাচনকালীন সরকার সংক্ষিপ্ত হলেও তার কলেবর নিয়ে এখনো চুড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।









Leave a reply