পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমালো ভারত

|

বিশ্ববাজারের যখন তেলের দাম বৃদ্ধির পথে তখন দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিলো ভারত সরকার। দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আজ বৃহস্পতিবার ঘোষণা করলেন, পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্যের ওপর ছাড় মিলবে লিটার প্রতি আড়াই রুপি; বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ৩ টাকা। জ্বালানি তেলের ক্রমবর্ধমান মূল্যের ফলে সাধারণ নাগরিকের নাভিশ্বাস উঠে যাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নিল ভারত সরকার। বর্তমানে পেট্রোলের দাম ভারতে ৮৪ রুপি।

অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আজ দেশের নাগরিকদের সামন্য স্বস্তির শ্বাস ফেলার ব্যবস্থা করলেন তাঁর এ গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণার মাধ্যমে। মোট আড়াই রুপির মধ্যে ১.৫০ টাকা শুল্কছাড়ের জন্য এবং বাকি ১ টাকা কমানো তৈলসংস্থাগুলির মাধ্যমে সরকারের প্রাপ্য অর্থ থেকে। অরুণ জেটলি জ্বালানি তেলের বৃদ্ধি জন্য বিশ্ববাজারে অশোধিত তেলের দামের ভয়াবহ বৃদ্ধিকেই দায়ী করেন।

এই আড়াই রুপি ছাড় দেওয়ার বিষয়টি ভারত সরকার এবং তেল সংস্থাগুলির নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। “আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, রাজ্যগুলিও এবার কোনও ইতিবাচক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে জ্বালানি তেলের মূল্যের ব্যাপারে”, বলেন জেটলি।

তিনি রাজ্যগুলিকেও কেন্দ্রের পথ অনুসরণ করেই জ্বালানি তেলের ওপরে চাপানো ভ্যাটকে সমপরিমাণ কমানোর জন্য অনুরোধ করেন। সেক্ষেত্রে পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্য প্রতি লিটারে প্রায় পাঁচ রুপি কমে যাবে।

অর্থমন্ত্রীর এই আবেদনের প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ইতিবাচক সাড়া মিলেছে দুই বিজেপি শাসিত রাজ্য গুজরাট ও মহারাষ্ট্রের কাছ থেকে। অর্থমন্ত্রী আরও জানান, এই করছাড়ের ফলে সরকারের রাজস্ব খাতে সাড়ে ১০ হাজার কোটি রুপি কম ঢুকবে।









Leave a reply