দর কষাকষিতে নবজাতক হাতবদল

|

পরপর ৪ কন্যা সন্তান। তাই ঋণের দায়ে জর্জরিত পিতা ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে নবজাতককে তুলে দিয়েছেন অন্যের কোলে। আইন মোতাবেক দত্তক না হলেও কন্যাশিশুটিকে পেয়ে খুশি নিঃসন্তান প্রতিবেশি দম্পতি।

শহরের মাদরাসা রোডের এই ঘিঞ্জি এলাকায় বসবাস হতদরিদ্র আর জেলে পরিবারগুলোর। ৪ অক্টোবর এখানেই একটি কন্যাশিশুর জন্ম দেন মৎস্যজীবী দ্বীন ইসলামের স্ত্রী কুলছুমা বেগম।

অভাবের সংসার, বাজারে দেনা ৭০ হাজার টাকা। তার উপর চতুর্থবারের মতো কন্যা সন্তানের আগমনে খুশি হতে পারেনি বাবা-মা। তাই দরকষাকষির পর ৩০ হাজার টাকায় শিশুটিকে অন্যের কোলে তুলে দিয়েছেন তারা।

হাতবদলের পর নবজাতকের ঠিকানা এখন সুফিয়া-মিজান দম্পতির ঘর। নতুন অতিথির আগমনে খুশির বন্যা পরিবারে। নতুন নাম রাখা হয়েছে- ফাতিমা।

ঘটনার পর থেকে স্বামী দিন ইসলাম নিরুদ্দেশ। স্ত্রী কুলছুমা জানালেন, পেশায় জেলে দ্বীন ইসলাম দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন।









Leave a reply