ইলিশ যখন অ্যাম্বুলেন্সে!

|

পাবনা প্রতিনিধি:

ইলিশের প্রজনন মৌসুম চলছে। মাছ ধরায় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। ১ অক্টোবর থেকে তা চলবে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত। কিন্তু নিষিদ্ধ সময়েও মা ইলিশ ধরা অব্যাহত রেখেছে কিছু চক্র। অবৈধভাবে ধরা সেই মাছ পরিবহনের সময় পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে অবলম্বন করা হচ্ছে অভিনব সব পন্থার। আজ শনিবার পাবনায় অ্যাম্বুলেন্স থেকে বিপুল পরিমাণ ইলিশ ও মাছ ধরার সরঞ্জাম আটক করেছে নিরাপত্তা কর্মীরা।

পাবনার বেড়া উপজেলার বাধেরহাট থেকে আমিনপুর থানা পুলিশ সাড়ে আট মণ ইলিশ মাছসহ অ্যাম্বুলেন্সটি আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এর আগে ঢালারচর এলাকা থেকে প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধার করে ধ্বংস করে পুলিশ। ইলিশসহ আটককৃত পাঁচজন জেলের মাঝে মোয়াজ্জেম হোসেন নামে স্থানীয় একটি কলেজের এক প্রভাষকও রয়েছেন।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদে তারা জানতে পারে কাশিনাথপুরের স্থানীয় একটি ক্লিনিকের অ্যাম্বুলেন্সে করে অবৈধভাবে ইলিশ মাছ আনা হচ্ছে। পরে তল্লাশি চালিয়ে সাড়ে আট মণ ইলিশ মাছ উদ্ধার করা হয়।









Leave a reply