আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের এখনও ৫ ইউনিট বন্ধ

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
আশুগঞ্জ-কিশোরগঞ্জ ১৩২ কেভি সঞ্চালন লাইনে ত্রুটির কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সব কটি ইউনিট বন্ধ হয়ে যায়। এতে জাতীয় গ্রীডে ১১৪৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ হ্রাস পেয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিকট শব্দে আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সবকটি ইউনিটে উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। পরে বন্ধ হওয়া ১৪ টি ইউনিটের মধ্যে কারখানার নিজস্ব প্রকৌশলীরা চেষ্টা করে ৯টি ইউনিট চালু করতে পারলেও এখনো বন্ধ রয়েছে ৫টি ইউনিট। এতে তাৎক্ষণিক ভাবে কারখানার আশপাশের এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী মো. শাহ আলম খান জানান, সকালে হঠাৎ করে আশুগঞ্জ-কিশোরগঞ্জ জাতীয় সঞ্চালন লাইনে ত্রুটি দেখা দিলে বিকট শব্দে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সবকটি ইউনিট বন্ধ হয়ে যায়। পরে কারখানার নিজস্ব প্রকৌশলীরা চেষ্টা চালিয়ে কারখানার সচল ৯টি ইউনিট চালু করতে পারলেও এখনো বন্ধ রয়েছে ১৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ইউনিট-৩ ও ৪, ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন গ্যাস ইঞ্জিন, ২২৫ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন সিপিপিসি ও ৫৫ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন প্রিসিশন। বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিজস্ব প্রকৌশলীরা মেরামতের কাজ শুরু করে বন্ধ হওয়া ইউনিটগুলো চালু করার চেষ্টা করছেন। যেকোন সময়ের মধ্যেই বন্ধ হওয়া ৫টি ইউনিট চালু হয়ে যাবে।

তিনি আরো জানান, চাহিদা কম থাকায় কারখানা বন্ধ হলেও বিদ্যুতের কোন ঘাটতি হবে না। এবং আশপাশের এলাকায়ও বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে।









Leave a reply