সাতক্ষীরায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা, অভিযুক্ত বখাটে যুবক গ্রেফতার

|

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরায় বখাটের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আসফিয়া খাতুন চাঁদনী (১৬) নামে দশম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সকাল ৯ টার দিকে বাড়ির সবার অজান্তে ঘরের ভিতর গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মেহেদী হাসান নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। চাঁদনী সাতক্ষীরা পৌরসভার বাগানবাড়ি এলাকার তফুরা খাতুনের কন্যা ও কারিমা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের ১০ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী।

স্থানীয়রা জানান, বাগানবাড়ি এলাকার শফিকুল ইসলামের বখাটে ছেলে মেহেদী হাসান (২২) প্রায় ওই মেয়েটিকে উত্যক্ত করতো। তার ভয়ে এলাকায় মেয়েটি চলাফেরা করতে পারতো না। স্কুলে যাওয়া-আসার পথেও বখাটে মেহেদী তাকে বিভিন্ন ভাবে কুপ্রস্তাব দিতো। এ ঘটনার জের ধরে সোমবার সকালে চাঁদনী সবার অজান্তে নিজ ঘরের মধ্যে আড়ার সাথে গলায় উড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। চাঁদনীর পিতা আব্দুল গফফার কয়েকবছর পূর্বে তার মাতাকে ত্যাগ করে বিয়ে করে অন্যত্র চলে যায়।

চাঁদনীর পিতা আব্দুল গফফার বলেন, বখাটে মেহেদী হাসান প্রায় তার মেয়েকে উত্যক্ত করতো। মেহেদীর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তার মেয়ে আত্মতহ্যা করেছে। আমি আমার মেয়ে হত্যার বিচার চাই।

আটক মেহেদির বাবা শফিকুল ইসলাম জানান, আমার ছেলেকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, জামা-কাপড় কেনা-কাটা নিয়ে রাতে সে তার মায়ের সাথে ঝগড়া করে। এর জের ধরে সে আত্মহত্যা করতে পারে বলে তিনি ধারণা করছেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার বিষয়ে বলেন, মেহেদী হাসান নামের ওই বখাটেকে আমরা এরইমধ্যে গ্রেফতার করেছি। নিহতের পরিবার ও আশপাশের লোকজন মনে করে মেহেদীর কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। এলাকায় এ নিয়ে গুঞ্জন রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল ও পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান জানান, লাশ দাফনের আগেই বখাটে যুবক মেহেদিকে আমরা আটক করতে সক্ষম হয়েছি। এ ঘটনায় যারাই জড়িত থাকুক না কেন তাদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে।









Leave a reply