সার আত্মসাতের অভিযোগে শ্রমিক লীগ নেতা ও সাবেক গুদাম ইনচার্জের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

|

বগুড়া ব্যুরো
সরকারি গুদামের ১৫৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকার সার আত্মসাতের অভিযোগে বগুড়ায় শ্রমিক লীগ নেতা রাশেদুল ইসলাম রাজা ও বাফার গুদামের সাবেক ইনচার্জ নবীর উদ্দিন খানকে আসামি করে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের সমন্বিত বগুড়া জেলা কার্যালয়।

বুধবার সকালে দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে জেলার আদমদীঘি থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আদমদীঘির সান্তাহার এলাকার সরকারি সার গুদামের উপ-প্রধান প্রকৌশলী ও ইনচার্জ নবীর উদ্দিন খান এবং গুদামের ঠিকাদার উপজেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক রাশেদুল ইসলাম রাজা ২০১৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ৫২ হাজার ৩৪২ মেট্রিক টন সার কালোবাজারে বিক্রি করে দেন। যার বাজারমূল্য ১৫৩ কোটি ৩৬ লাখ ১৩ হাজার টাকা। ২০১৭ সালে এই বিপুল পরিমাণ সার বিক্রির অভিযোগ ওঠার পর সাময়িক বরখাস্ত করা হয় গুদাম ইনচার্জ নবির উদ্দিনকে। এরপর এনিয়ে তদন্ত শুরু করে দুদক।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুল ইসলাম যমুনা নিউজকে জানান, বুধবার সকাল ১১টার দিকে দুদকের সহকারী পরিচালক থানায় এসে মামলাটি দায়ের করেছেন। নথিভূক্ত হবার পর এনিয়ে থানা পুলিশ পরবর্তী আইনী কার্যক্রম শুরু করেছে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply