ইউনেস্কো থেকে সদস্যপদ প্রত্যাহার যুক্তরাষ্ট্রের


ইসরায়েল বিরোধী অবস্থানের অভিযোগ তুলে জাতিসংঘের সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো থেকে নিজেদের সদস্যপদ প্রত্যাহার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হেথার নাউর্ট জানিয়েছে, ইউনেস্কো থেকে যুক্তরাষ্ট্র তার প্রতিনিধিত্ব সরিয়ে নিলেও প্যারিসে ইউনেস্কোর সদর দফতরে একটি পর্যবেক্ষণ মিশন থাকবে।

এদিকে প্যালেস্টাইন ন্যাশনাল ইনিশিয়েটিভ এর সাধারন সম্পাদক মোস্তফা বারগৌতি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত প্রমাণ করে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে ইসরাইলের প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট। এটা লজ্জাজনক। আজ হোক কাল হোক ফিলিস্তান জাতিসংঘের সকল সংগঠনের সদস্য হবে। তখন কি যুক্তরাষ্ট্র তাদেরকে স্বাস্থ্য সংস্থা হু বা ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রোপারটি অর্গানাইজেশন থেকে সরিয়ে নিবেন। যা হবে তাদের জন্য ক্ষতিকর। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তের ফলে জাতিসংঘ পরিবার ও জোটবদ্ধতার ক্ষতি হবে বলে মন্তব্য করেছে ইউনেস্কো।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে ইউনেস্কোতে ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ দিলে ইউনেস্কোতে চাঁদা দেয়া বন্ধ করে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের দেশ হিসেবে স্বীকৃতিরও বিরোধিতা করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র।

চলতি বছরের মে মাসে ইউনেস্কোর নির্বাহী পরিষদে অনুমোদন পাওয়া এক প্রস্তাবে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে জেরুজালেমের স্বাতন্ত্র্য ক্ষুণ্ন করার অভিযোগ আনা হয়। প্রস্তাবে বলা হয়, জেরুজালেমের ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতিকে ধ্বংস করছে ইসরায়েল এমনিক অনৈতিকভাবে জেরুজালেম ও গাজা অধিগ্রহণ করে আছে।

ইউনেস্কোর নির্বাহী বোর্ডে পাস হওয়া ওই প্রস্তাবকে ‘আন্তর্জাতিক আইনের জয়’ বলে উল্লেখ করেছেন ফিলিস্তিনি নেতারা। বিপরীতে ইসরায়েল বলছে, এটি ‘ইউনেস্কোর অপ্রয়োজনীয় রাজনৈতিক’ কর্মকাণ্ড।

টিবিজেড/









Leave a reply