চলে গেলেন বীর প্রতীক তারামন বিবি

|

চলে গেলেন বীর প্রতীক তারামন বিবি। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে নিজ বাড়িতে মধ্যরাতে তিনি ইন্তেকাল করেন। দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে ভুগছিলেন ৬১ বছর বয়সী এই বীর মুক্তিযোদ্ধা।

তারামন বিবির জন্ম ১৯৫৭ সালে কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুর উপজেলার শংকর মাধবপুর গ্রামে। মোছাম্মৎ তারামন বেগম যিনি তারামন বিবি নামে অধিক পরিচিত, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন বীর নারী মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে।

স্বাধীনতা যুদ্ধে সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ সরকার তাঁকে বীর প্রতীক খেতাব প্রদান করে। এরপর অবশ্য দীর্ঘদিন তাঁর কোন খোঁজ করেনি কেউ। ১৯৯৫ সালে তাঁকে নতুন করে খুঁজে বের করা হয়।

তাঁকে নিয়ে পত্রপত্রিকায় অনেক লেখালেখি হয়। একই বছর তাঁর হাতে তুলে দেয়া হয় বীরত্বের পুরস্কার। পরিচিতি আর সুখ্যাতি পেলেও তারামন বিবি নিভৃতেই বসবাস করছিলেন রাজিবপুরে স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে।

গত কয়েক বছর ধরে ফুসফুসের সমস্যাসহ নানা রকম রোগে ভুগছিলেন তারামন বিবি। গত নভেম্বরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে, তাকা ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। অবশ্য কদিন পরেই তিনি ফিরে যান নিজ বাড়িতে। তারামন বিবিকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করার কথা জানিয়েছেন স্বজনরা।

মহান মুক্তিযুদ্ধে সাহসী ভূমিকা পালনকারী বীরপ্রতীক তারামন বিবি’র মৃত্যুতে শোক ও গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শোক হাসিনা।









Leave a reply