ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে শিশুর রগ কাটল বখাটে

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে ৭ বছরের শিশুর হাতের রগ কেটে দিয়েছে এক পাষন্ড। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার জিলুকদারপাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। ওই শিশুর বাবা সৌদি আরব প্রবাসী। শিশুটি স্থানীয় একটি প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থী।

শিশুটির মামা আয়াতুল্লাহ জানান, শিশুটি দুপুর ৩টার দিকে সহপাঠীদের সঙ্গে বাড়ির সামনে ব্যাডমিন্টন খেলছিল। এর কিছুক্ষণ পর তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। সন্ধ্যায় প্রায় ৬টার দিকে সে বাম হাতের রগকাটা রক্তাক্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরে আসে। এ সময় তাকে চিকিৎসার জন্য দ্রুত জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে সে কিছুটা সুস্থ হলে ঘটনা খুলে জানায়। শিশুটি জানায়, এলাকার বায়জিদ নামের এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রী তাকে ব্যাডমিন্টন খেলার ফুল দেওয়ার কথা বলে সাথে নিয়ে একটি কুঁড়েঘর আটক করে। এ সময় তাকে বায়জিদ ঝাপটে ধরার পর সে অচেতন হয়ে যায়। সন্ধ্যায় জ্ঞান ফেরার পর দেখে তার হাতের রগকাটা। পরে বাড়িতে ফিরে আসে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ফায়েজুর রহমান ফায়েজ জানান, শিশুটির বাম হাতের একটি রগ কেটে গেছে। তাকে ভর্তি দেওয়া হয়েছে।

এই ব্যাপারে জেলা পুলিশে সরাইল সার্কেলের জেষ্ঠ সহকারি পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান ফকির জানান ঘটনার খবর পেয়ে বখাটে বায়জিদকে কুট্রাপাড়া থেকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।









Leave a reply