ক্রিকেট খেলায় না নেয়ায় ছুরিকাঘাতে খুন

|

পাবনা প্রতিনিধি
পাবনায় ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে হামিম হোসেন মীম (১৫) নামের এক কিশোর খুন হয়েছে। এ ঘটনায় আহত আব্দুল ওয়াজেদ (১৮) নামের একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আজ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সদর উপজেলার চরঘোষপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ছুরিকাঘাতকারী বন্ধুর বাড়ির হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে নিহত বন্ধুর স্বজনরা।

নিহত কিশোর মীম চরঘোষপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে। ছুরিকাঘাতকারী বন্ধুর নাম অনিক হোসেন (২০)। সে একই গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে। আর আহত ওয়াজেদ ওই গ্রামের আজমত আলীর ছেলে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত) গৌতম কুমার বিশ্বাস যমুনা অনলাইনকে জানান, দুপুরে বন্ধুরা মিলে ক্রিকেট খেলার জন্য মাঠে যাচ্ছিল। তাদের মধ্যে অনিক হোসেনকে খেলায় নেয়া হবে না বলে জানায় অন্য বন্ধুরা। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে অনিক বাড়ি থেকে ছুরি নিয়ে তার বন্ধু হামিমকে আঘাত করে। এ সময় তাকে বাধা দিতে গেলে ওয়াজেদ নামের আরেক বন্ধুকেও ছুরিকাঘাত করে অনিক। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় হামিম ও ওয়াজেদকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হামিমকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ওয়াজেদ কে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে, হামিম নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে তার স্বজনরা ছুরিকাঘাতকারী অনিকের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর শুরু করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ।









Leave a reply