চাচা’র লাঙ্গলের বিপরীতে ভাতিজা’র নৌকা

|

রংপুর-২ (বদরগঞ্জ ও তারাগঞ্জ) আসনে চাচার বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ভাতিজা। চাচা জাতীয় পার্টির উপজেলা সভাপতি আসাদুজ্জামান চৌধুরী সাবলু লাঙ্গল প্রতীক পেয়েছেন। অপরদিকে ভাতিজা বদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান এমপি আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করছেন।

সাবলু চৌধুরীর চাচাতো ভাই প্রয়াত আব্দুল মমিন চৌধুরীর ছেলে হলেন ডিউক চৌধুরী। ভোটের মাঠে চাচা-ভাতিজার লড়াই বাড়তি উত্তেজনার সৃষ্টি করেছে।

২০১৪ সালের নির্বাচনে নানা নাটকীয়তার পর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশে মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন আসাদুজ্জামান চৌধুরী সাবলু। ফলে ওই আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন ডিউক চৌধুরী।

মহাজোটের আসন ভাগাভাগি নিয়ে এবারো বেশ কয়েকদিন ধরে ছিলো টানটান উত্তেজনা। কে কাকে এ আসনটি ছাড় দিচ্ছে এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার কমতি ছিল না। শেষ পর্যন্ত সমঝোতা না হওয়ায় উন্মুক্ত হয়ে যায় এ আসনটি। ফলে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির দুই প্রার্থীই লড়াইয়ে টিকে থাকলেন।









Leave a reply