যৌন সহিংসতায় সবচেয়ে নিকৃষ্ট মেগাসিটি দিল্লি

|


নারীদের প্রতি যৌন নির্যাতন ও সহিংসতার ক্ষেত্রে বিশ্বের সবেচেয়ে নিকৃষ্ট মেগাসিটি দিল্লি। অবশ্য,এই কলঙ্কের ভাগীদার হিসেবে দিল্লি পাশে পাচ্ছে ব্রাজিলের সাও পাওলো’কে। লন্ডনভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন বিশ্বের ১৯টি মেগাসিটির ওপর একটি জরিপ চালিয়েছে। সোমবার
প্রকাশিত এ জরিপে উঠে এসেছে এমন চিত্র। তালিকায় ৪র্থ অবস্থানে আছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।

জরিপবিষয়ক প্রতিবেদনে দিল্লি সম্পর্কে বলা হয়, এই শহরে নারীরা ধর্ষণ, হয়রানি ও যৌন নির্যাতনের ঝুঁকিতে থাকে সবচেয়ে বেশি। ভারতের দিল্লিতে চলন্ত বাসে তরুণী নির্ভয়াকে ধর্ষণের ঘটনায় বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছিল। পাঁচ বছরের মাথায় যৌন নির্যাতনের দিক দিয়ে নতুন করে শহরটি নিকৃষ্টতম শহরের কাতারে উঠে এসেছে।

থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন জাতিসংঘের তালিকায় থাকা ১৯টি মেগাসিটির ওপর চলতি বছরের জুন ও জুলাই মাসে এই জরিপ করেছে। যৌন নির্যাতনের দিক দিয়ে নিকৃষ্টতম শহরের কাতারে দিল্লির সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষে রয়েছে ব্রাজিলের সাও পাওলো শহর। তৃতীয় অবস্থানে আছে কায়রো, চতুর্থ অবস্থানে যৌথভাবে মেক্সিকো সিটি ও ঢাকা, ষষ্ঠ অবস্থানে ইস্তাম্বুল। তালিকায় নবম অবস্থানে আছে পাকিস্তানের করাচি। জরিপ অনুযায়ী, নারীদের প্রতি যৌন নির্যাতনের ঘটনা সবচেয়ে কম হয় লন্ডনে।

নারীদের জন্য সবচেয়ে অনিরাপদ মেগাসিটি কায়রো, ৭ম আবস্থানে ঢাকা

অবশ্য, নারীদের ওপর যৌন নির্যাতনের তালিকায় শীর্ষে থাকলেও নারীদের জন্য সবচেয়ে অনিরাপদ শহরের আরেকটি জরিপে চতুর্থ অবস্থানে আছে দিল্লি। নারীদের জন্য সবচেয়ে অনিরাপদ শহরের তালিকার শীর্ষ অবস্থানে আছে মিশরের রাজধানী কায়রো। দ্বিতীয় অবস্থানে আছে পাকিস্তানের করাচি ও কিনশাসা। এই তালিকায় বাংলাদেশ আছে  সপ্তম অবস্থানে।

নারীদের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ শহরের তালিকায় প্রথমেই আছে  জাপানের টোকিও।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply