কলমাকান্দায় খুন হওয়া সেই অজ্ঞাত যুবকের পরিচয় মিলেছে

|

কামাল হোসাইন, নেত্রকোণা:

নেত্রকোণার ঠাকুরাকোণা-কলমাকান্দা সড়কের বাবনী নামক স্থান থেকে গত বুধবার উদ্ধার করা লাশটির পরিচয় পাওয়া গেছে। কলমাকান্দা থানায় বুধবার রাতে জামা দেখে লাশ শনাক্ত করেন নিহতের পিতা।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম মোঃ নাঈম মিয়া (২৮)। তিনি গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বেড়াইদের চালা এলাকার নৈশপ্রহরী নাসির উদ্দিনের ছেলে। এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করেছেন নিহতের পরিবার। নাঈম পেশায় পিকআপ চালক। এ ঘটনায় বুধবার রাতে তিন জনকে আটক ও পিকআপটি উদ্ধার করেছে কলমাকান্দা থানা পুলিশ।

হত্যার ঘটনায় আটককৃতরা- নেত্রকোণা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাউথ পড়া কোয়ারপুর গ্রামের মোঃ জয়নাল মিয়ার ছেলে রায়হান মিয়া (২৫), ফেনী জেলার দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিণ করিমপুর গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে মোঃ মাইন উদ্দিন (২৩) ও কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার সাচাইল গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দিনের ছেলে মোঃ শহিদুল ইসলাম ওরফে নান্টু (২১)।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ৮ ডিসেম্বর রাতে শ্রীপুর মাওনা থেকে পিকআপ নিয়ে বের হওয়ার পর থেকে নিখোঁজ হয় নাঈম। এরপর থেকে তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়। বুধবার সকালে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে কলমাকান্দা থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে কলমাকান্দা থানার ওসি মো. মাজহারুল করিম জানান, লাশ নিয়ে বিভ্রান্তি কেটেছে। শেষ পর্যন্ত এই লাশটি গাড়িচালক নাঈমের বলে শনাক্ত করা হয়। আটককৃতরা গাড়ির চালক হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার প্রাথমিক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ৩/ ৪ দিন আগে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। পরে লাশটিকে একটি চটের বস্তায় ভরে ঘটনাস্থলে ফেলে পিকআপ গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায় হত্যাকারীরা।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা নাছির উদ্দিন বাদী হয়ে আটককৃতদের আসামি করে অজ্ঞাতনামাসহ কলমাকান্দা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।









Leave a reply