জন্মদিনের এমন উপহারে বোবা হয়ে গেছি: ন্যান্সি

|

জন্মদিনে স্বামী নাজিমুজ্জামান জায়েদের কাছ থেকে ৫ শতাংশ জমি উপহার পেয়েছেন এ সময়ের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি।

বৃহস্পতিবার সকালে স্বামীর কাছ থেকে এমন উপহার পেয়ে চমকে যান এ শিল্পী।

স্বামীর কাছ থেকে মূল্যবান এই উপহার পেয়ে উচ্ছ্বসিত ন্যান্সি যুগান্তরকে বলেন, কিছুই বলতে পারব না, এমন উপহারে বোবা হয়ে গেছি।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ন্যান্সি বলেন, আমি কখনো ভাবতেই পারিনি এভাবে সারপ্রাইজ হব। আমার কোনো প্রিপারেশন ছিল না, আমি জানতাম না কোনো কিছুই, হঠাৎ করেই বেলা সাড়ে ১১টায় জায়েদ আমাকে এমন উপহার দিয়ে চমকে দিয়েছে।

জনপ্রিয় এ কণ্ঠশিল্পী বলেন, পাঁচ বছরের সংসারজীবনে এটিই আমার জীবনের সেরা উপহার। স্বামীর কাছ থেকে এমন উপহার পাওয়া যে কোনো নারীর জন্যই আনন্দের।

উপহার প্রসঙ্গে ন্যান্সি আরও বলেন, ওই ৫ শতক জমি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এলাকায়। আমার স্বামীর (জায়েদ) প্রথম কেনা জমি। সেই জমিটি সে আমাকে দানপত্র করে দেয়। এমন উপহার পেয়ে আমি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।

স্বামী হিসেবে জায়েদ কেমন স্বভাবের এমন প্রশ্নের জবাবে ন্যান্সি বলেন, জায়েদ খুব নরম-সরম মানুষ, ঠাণ্ডা মেজাজের। আমি যখন যা বলি সেটা সে করার চেষ্টা করে। তবে নিজে থেকে কোনো কিছু করার চেষ্টা করে না। সে মুখ ফুটে সহজে কিছু বলতে চায় না।

ন্যান্সির স্বামী নাজিমুজ্জামান জায়েদ বলেন, আগামী বছরে আমাদের সংসারজীবনের ৬ বছরপূর্তি হবে। সংসারজীবনের শুরু থেকে ন্যান্সির কাছ থেকে অনেক ভালোবাসা পেয়ে আসছি। ন্যান্সির জন্মদিনে আমার এই উপহার আসলে তেমন কিছুই না। এটাকে জাস্ট ভালোবাসার একটা স্মারক বলতে পারেন।

জন্মদিনে কেক কেটে ন্যান্সিকে খাওয়াচ্ছেন স্বামী নাজিমুজ্জামান জায়েদ

জায়েদ বলেন, ন্যান্সি প্রায়ই দুষ্টামি করে আমাকে বলে, বিশেষ দিনগুলোতে তুমি আমাকে কিছু দাও না কেন? ভাবলাম, এর চেয়ে সুন্দর সময় আর কীই–বা হতে পারে। সামান্য উপহারে প্রিয় মানুষের উচ্ছ্বাস আমাকে আনন্দিত করেছে।

ময়মনসিংহ শহরের ঢোলাদিয়া মৌজায় ওই ৫ শতক জমির সরকারি মূল্য আনুমানিক ২৫ লাখ টাকা।

(সূত্র: যুগান্তর)









Leave a reply