কুলাউড়ায় নৌকার অফিসে হামলা

|

মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী এম এম শাহীনের অফিসে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

মহাজোটের নেতৃবৃন্দ ঘটনার জন্য জামায়াত- বিএনপিকে দায়ী করেছে এবং হামলায় নৌকার ৫জন সমর্থক আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন। তবে বিএনপির পক্ষ থেকে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে এ ঘটনা আ’লীগের পরিকল্পিত বলে দাবি করা হচ্ছে। রোববার রাতে কুলাউড়ার কাদিপুর ইউনিয়নের ঢুলিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

মহাজোট নেতৃবৃন্দ জানান, ধানের শীষের মিছিল নিয়ে কয়েকজন লোক এসে নৌকার কার্যালয়ে হামলা করে আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় অফিসে অবস্থানরত মনি মিয়া (২০), ছোট মিয়া (১৯), রাজু আহমদ (২০)সহ ৫ জন আহত হয়। আহতদের কুলাউড়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে যুবলীগের সাবেক সভাপতি বদরুল ইসলাম বদর বলেন-‘জামায়াত শিবিরসহ বিএনপির নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে এই হামলা চালিয়েছে।’

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ শামীম মূসা বলেন-‘আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনি। বিএনপির নেতা-কর্মীরা মিছিল করে এসে আওয়ামী লীগের অফিসে হামলা চালিয়েছে। তবে কাদের নেতৃত্বে এ হামলা হয়েছে তদন্তের স্বার্থে নাম প্রকাশ করেননি এ পুলিশ কর্মকর্তা।

জানতে চাইলে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এএনএম আবেদ রাজা বলেন- ‘বিএনপি সুষ্ঠু নির্বাচনের পক্ষে। কোন হামলার পক্ষপাতী নয়। এটা আ’লীগের পরিকল্পিত ঘটনা যার দায় আমাদের উপর চাপাতে চাচ্ছে।









Leave a reply