হোয়াইট হাইজে আমি বড় একা: ট্রাম্প

|

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বাসভবন ও দফতর হোয়াইট হাউস থেকে বড়দিনের ছুটিতে একরাশ হতাশা ও বিষণ্ণতা বেরিয়ে এসেছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটারে একের পর এক নৈরাশ্য ঝেড়েছেন।

এসব টুইট পোস্টে তিনি বলেন, ডেমোক্রেটরা ভণ্ড। গণমাধ্যম মিথ্যা গল্প বানায়। বিদেশনীতি নিয়ে ভুল করেন সিনেটররা, এমনকি প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিসও।

এদিন এক টুইটে ট্রাম্প সাত বছরের গৃহযুদ্ধে বিধ্বস্ত সিরিয়া পুনর্গঠনের দায়িত্ব সৌদি আরবকে দেয়ার কথা জানিয়েছেন। সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৩২ মিনিটে আসে দিনের দশম টুইট, তাতেই জানান একাকীত্বের কথা।

তিনি লিখেছেন, হোয়াইট হাউসে একেবারেই একা (দুর্ভাগা) হয়ে খুবই প্রয়োজনীয় সীমান্ত সুরক্ষার ব্যাপারে চুক্তি করতে ডেমোক্রেটদের ফিরে আসার অপেক্ষায় বসে আছি।

ট্রাম্পের টুইট বার্তা-
I am all alone (poor me) in the White House waiting for the Democrats to come back and make a deal on desperately needed Border Security. At some point the Democrats not wanting to make a deal will cost our Country more money than the Border Wall we are all talking about. Crazy!

— Donald J. Trump (@realDonaldTrump) December 24, 2018

এদিন হোয়াইট হাউসে কার্যত একাই ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বড়দিনের ছুটিতে ক্যাপিটল হিলের বেশিরভাগ আইনপ্রণেতাই বাড়ি চলে গেছেন। ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সও ক্রিসমাসের ছুটি কাটাতে চলে গেছেন কয়েক মাইল দূরের নাভাল অবজারভেটরির বাসভবনে।

ফ্লোরিডার মার-আ-লগো থেকে অবশ্য সোমবারই ওয়াশিংটন ডিসিতে ফিরে এসেছেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প।

তবে ট্রাম্পের টুইটে মূলত নিজ দলের সিনেটরদের সঙ্গে দূরত্বের পাশাপাশি আগামী বছরের দুশ্চিন্তাগুলোই ফুটে উঠেছে।

জানুয়ারিতে প্রতিনিধি পরিষদের দায়িত্ব ফিরে পেলে ডেমোক্রেটরা ট্রাম্প প্রশাসনের দুর্নীতি ও প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত খরচের দিকে নজর দেয়ার হুমকি দিয়ে রেখেছে।

সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়ে রিপাবলিকান পার্টি ও মিত্র দেশগুলোর সঙ্গেও দূরত্ব বেড়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের।









Leave a reply