চলে গেলেন বাংলাদেশের বন্ধু রিগন

|

বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট ইতালীয় অনুবাদক, সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী ও মুক্তিযোদ্ধা ফাদার মারিনো রিগন (৯২) আর নেই। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ইতালির ভিচেঞ্চায় মৃত্যু হয় রিগনের। তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশ একজন সত্যিকারের বন্ধু হারালো।

বাংলাদেশের বন্ধু ফাদার রিগনের জন্ম ১৯২৫ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি ইতালির ভেনিসের অদূরে ভিল্লাভেরলা গ্রামে। ১৯৫৩ সালে ৭ জানুয়ারি তিনি বাংলাদেশে আসেন। এ দেশে তিনি ধর্মীয় কাজের পাশাপাশি শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি আর শিক্ষামূলক বহুমাত্রিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন।

ইতালিয়ান ভাষায় তিনি অনুবাদ করেছেন রবীন্দ্রনাথের গীতাঞ্জলিসহ চল্লিশ কাব্য, জসীমউদদীনের নকশী কাঁথার মাঠ, সোজন বাদিয়ার ঘাট, নির্বাচিত কবিতা, লালনের তিনশো পঞ্চাশটি গান ছাড়াও বাংলাদেশের অসংখ্য কবিতা। তিনি ইতালীয় রূপকথা পিনোকিও অনুবাদ করেছেন বাংলাভাষায়।

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসাসেবা ও যুদ্ধপীড়িতদের সাহায্যার্থে এগিয়ে আসেন। দেশের দক্ষিণাঞ্চলে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ১৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ ছাড়াও হাজার হাজার গরিব ছাত্রছাত্রীদের স্পন্সরশিপ প্রোগ্রামের মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন পড়াশোনা করার সুযোগ করে দেন তিনি। এসবের স্বীকৃতিস্বরূপ সরকার তাকে বাংলাদেশের সম্মানসূচক নাগরিকত্ব দেয়।









Leave a reply