খাগড়াছড়িতে এম.এন লারমা গ্রুপের নেতাকে হত্যা

|

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলার সীমান্তবর্তী রামগড় উপজেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস এম.এন লারমা গ্রুপ) -এর নেতা মোহন ত্রিপুরাকে (৩০) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

আজ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রাগমড় পৌর সদরের জগন্নাথপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোহন ত্রিপুরা থলিচন্দ্র মহাজন পাড়ার বাসিন্দা কৃষ্ণ ত্রিপুরার ছেলে। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস এম.এন লারমা গ্রুপ) -এর রামগড় উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যায় জগন্নাথপাড়া এলাকার একটি গোডাউনের সামনে আড্ডা দিচ্ছিলেন মোহন ত্রিপুরা। এসময় অজ্ঞাত কয়েকজন অস্ত্রধারী তাকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রতন কুমার খীসা জানান, নিহতের শরীরে ৩টি গুলির চিহ্ন পাওয়া গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মো. আব্দুল হান্নান জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। তবে এ ঘটনায় কে বা কারা জড়িত তা এখনো জানা যায় নি।

এদিকে এই হত্যাকান্ডের সাথে পাহাড়ি আ লিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ প্রসীত খীসা গ্রুপ) জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের ছোট ভাই সুমন ত্রিপুরা।

তবে অভিযোগ প্রত্যাখান করে এটি তাদের আভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের বলে দাবী করেছেন ইউপিডিএফ প্রসীত খীসা গ্রুপ এর কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরণ চাকমা।









Leave a reply