শাহনাজের স্কুটি উদ্ধার করে দিলো পুলিশ

|

আলোচিত রাইডার শাহনাজ আক্তার পুতুলের ছিনতাই হওয়া স্কুটিটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঢাকা থেকে ছিনতাইয়ের মাত্র ১৪ ঘণ্টার মধ্যেই স্কুটি নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার হয়। রাইড শেয়ারিং অ্যাপসের মাধ্যমে এই স্কুটি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন দুই সন্তানের জননী শাহনাজ।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার ভোর ৫টায় নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে স্কুটিটি উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জনি নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জনি নিজেকে পাঠাও রাইডার দাবি করলেও পাঠাও কর্তৃপক্ষের কাছে জনির কোনো তথ্য ছিল না। তার মোবাইল ট্র্যাক করে ও অন্যান্য তল্লাশি নজরদারি বাড়িয়ে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে স্কুটিটি উদ্ধার ও জনিকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, উদ্ধার করা স্কুটি ও জনিকে ঢাকায় আনা হয়েছে। স্কুটি ও ছিনতাইকারী বর্তমানে শেরেবাংলা নগর থানায় রয়েছে।

সম্প্রতি জনির সঙ্গে পরিচয় হয় শাহনাজের। তাকে একটা স্থায়ী চাকরি দেবেন বলে মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে নিয়ে আসেন জনি। তারপর অভিনব কৌশলে শাহনাজের স্কুটিটি নিয়ে যান তিনি।

এরপর সংবাদমাধ্যমে এ নিয়ে খবর পরিবেশিত হলে সামাজিক মাধ্যম অনেকে শাহনাজের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। কেউ কেউ নতুন একটি বাইক কিনতে তাকে সহায়তা করারও প্রস্তাব দেন। ছাত্রলীগ ঘোষণা দেয় শাহনাজের জন্য একটি নতুন বাইকের ব্যবস্থা করে দেবে তারা।









Leave a reply