‘নাসির ভাইয়ের সাথে তর্ক করবেন না, সব জিরো হয়ে যাবে’

|

ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ হত্যার বিচার চেয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনকে খোলাচিঠি লিখেছেন নিহতের বড় বোন জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা। খোলা চিঠিতে দিয়াজকে উদ্ধৃত করে নিপা লিখেছেন, ‘নাসির ভাইয়ের সাথে তর্ক করবেন না, সব জিরো হয়ে যাবে। নাসির ভাই যা বলে মেনে নেন।’

মঙ্গলবার রাতে নিজের ফেইসবুক পাতায় এক পোস্টের মাধ্যমে এই খোলাচিঠি প্রকাশ করেছেন দিয়াজের বোন। জুবাইদা তার চিঠিতে সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনকে ‘নেতা’ সম্বোধন করেন এবং দিয়াজ হত্যার আগের ও পরের বিভিন্ন ঘটনা তুলে ধরেন।

জুবাইদা লিখেছেন, ‘দিয়াজ আর আমাদের আপনি ডেকেছিলেন কথা বলার জন্য, যেদিন দিয়াজকে বলেছিলেন তুমি ওপেন ঘুড়তে পারবে, ক্যাম্পাসে যেতে পারবে, দিয়াজের মা আমার মা, দিয়াজ সোনার টুকরো ছেলে, যেদিন আপনি আলমগীর টিপুকে আমাদের ঘড় ভাংচুরের মামলা থেকে বাদ দিতে বলেছেন, যেদিন আপনি কথা দিয়েছিলেন আমার দিয়াজের সার্টিফিকেট, ল্যাপটপ থেকে শুরু করে লুটপাট করে নিয়ে যাওয়া আমার মায়ের সব সম্পদ উদ্ধার করে দিবেন, সেদিন দিয়াজ আপনার ড্রয়িংরুমে বসে ভিতরের রুমে আমাকে বারবার এসএমএস করছিল- ‘নাসির ভাইয়ের সাথে তর্ক করবেন না, সব জিরো হয়ে যাবে। নাসির ভাই যা বলে মেনে নেন’।’

জুবাঈদা লেখেন, ‘আমরা মেনে নিয়েছিলাম। তবে দিয়াজকে প্রশ্ন করার সুযোগ হয়নি কেন আপনার সব কথা আমাদের মানতে হবে। তার আগেই দিয়াজকে খুনিরা পরপারে পাঠিয়ে দিল।’

২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নম্বর গেইট এলাকার বাসা থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনার বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি আলমগীর টিপু ও তার অনুসারীদের দায়ী করে দিয়াজের পরিবার। এর আগে একই বছরের ২৯ অক্টোবর দিয়াজসহ চার ছাত্রলীগ নেতার বাসায় ভাঙচুর চালায় প্রতিপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ৯৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন কলা ভবন ও শেখ হাসিনা হলের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজের দরপত্রকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের বিরোধে দিয়াজকে খুন করা হয় বলে দাবি তার অনুসারীদের। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী মামলা করেন। মামলার অন্যতম প্রধান আসামি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি আলমগীর টিপু। উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে টিপু এবং দিয়াজ দুজনই মেয়র আ জ ম নাছিরের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

ফেইসবুকে দেওয়া খোলাচিঠির সঙ্গে গত বছরের ১ অক্টোবর দিয়াজের একটি ফেইসবুক পোস্টও শেয়ার করেন জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা।









Leave a reply