ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

|

নীলফামারী সীমান্তে হত্যার দুদিন পর এবার ঠাকুরগাঁও সীমান্তে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। জেলার রানীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় সীমান্তে শুক্রবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত জাহাঙ্গীর আলম রাজু (২১) রানীশংকৈল উপজেলার শাহানাবাদ গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে।

ভোর ৪টার দিকে জাহাঙ্গীর আলম রাজুসহ কয়েকজন গরু ব্যবসায়ী ধর্মগড় সীমান্তের ৩৭৪/২ নম্বর পিলারের পাশ দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে। এ সময় ভারতের উত্তর দিনাজপুর জেলার শ্রীপুর বিএসএফ ক্যাম্পের টহল দল তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই রাজু নিহত হন এবং বাকিরা পালিয়ে আসেন।

বিজিবির ঠাকুরগাঁও-৫০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মোহা. মাসুদ জানান, বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করে মরদেহ ফেরত আনার চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

এর আগে গত মঙ্গলবার নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া সীমান্তে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করে বিএসএফ।

নিহত ওই যুবকের নাম খলিলুর রহমান (২৫)। তিনি ডিমলা উপজেলার পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের খালপাড়া গ্রামের মকছেদ আলীর ছেলে।

পরে ভারতে তার ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার রাতে পতাকা বৈঠকে বিজিবির কাছে লাশ হস্তান্তর করে বিএসএফ।









Leave a reply