লক্ষ্মীপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ২৬

|

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :

লক্ষ্মীপুরে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত সহ অন্তত ২৬ জন গুরুতর আহতাবস্থায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সোমবার সকালে সদর উপজেলার যাদৈয়া এলাকার ঢাকা-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়ক ও পৌরসভার টুকা মিয়া রাস্তার মাথা এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে পৌরসভার টুকা মিয়ার রাস্তার মাথা এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সা খাদে পড়ে যায়। এতে গুরুত্বর আহত হন কাজী সিরাজ উদ্দিন। পরে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহত কাজী সিরাজ উদ্দিন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার স্বাস্থ্য বিভাগের ইনস্পেক্টর ও কমলনগর উপজেলার চরজাঙ্গালিয়া গ্রামে আবদুল মতিনের ছেলে।

অন্যদিকে নোয়াখালীর চৌমুহনী থেকে ছেড়ে আসা আনন্দ পরিবহনের একটি বাস সকাল ১০টার দিকে উপজেলার যাদৈয়া এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়।

বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ও চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ উদ্ধার অভিযান চালিয়ে অন্তত ২৬ জন যাত্রীকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতদের মধ্যে রয়েছেন, মো. নিজাম উদ্দিন, রোকেয়া, নাজমা বেগম, আব্দুল্যাহ রাহাত, দুলাল মিয়া, আবুল বাশারসহ অন্তত ২০ জন।

চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহজাহান খান বলেন, ঢাকা-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়কের যাদৈয়া এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আনন্দ পরিবহনের একটি বাস খাদে পড়ে অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাসটি উদ্ধারে অভিযান চলছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply