পাকিস্তানের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের এটাই সবচেয়ে ভাল সুযোগ: মার্কিন সিনেটর

|

রিপাবলিকান মার্কিন সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উচিত যত দ্রুত সম্ভব পাকিস্তানী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাথে সাক্ষাৎ করে দীর্ঘদিন ধরে জঠিলতায় ভোগা সম্পর্ককে নতুনভাবে শুরু করা। আর এর মাধ্যমেই আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা।

গতকাল রোববার পাকিস্তান সফরের সময় গ্রাহাম এই মন্তব্য করেন। দেশ দুটির উর্ধ্বতন ব্যক্তিরা সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করছেন। গ্রাহামের মন্তব্যে তারই প্রতিফলন ঘটেছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ এই সিনেটর বলেন, ‘আমি দেখছি পাকিস্তানে অনেক কিছু বদলে গেছে। এবং এসব পরিবর্তন হয়েছে ইতিবাচক দিকেই।” তিনি আরও বলেন, খানের সাথে বৈঠক করলে এই অঞ্চল নিয়ে ট্রাম্পের আগ্রহ বর্তমানের চেয়ে অনেক বেড়ে যাবে। ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় সম্পর্ক বদলে ফেলার এক বড় সুযোগ আমরা পেয়েছি।’

গ্রাহাম আরও বলেন, ‘(ইসলামাবাদের সাথে) আগে ছিলো বিনিময়মূলক সম্পর্ক; সেটা বদলে ‘কৌশলগত সম্পর্কে’ উন্নীত করা উচিত।’

ওয়াশিংটন ও ইসলামবাদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্কে ঘুনে ধরেছিল। মার্কিনীদের সন্দেহ ছিল পাক সরকারের একাংশ তালেবানদেরকে সহায়তা করে থাকে। যদিও পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বরাবরই এটি অস্বীকার করা হয়েছে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে তালেবানদের সাথে ওয়াশিংটনের সম্ভাব্য একটি শান্তিচুক্তির চেষ্টা শুরুর পর দেশ দুটির মধ্যে সম্পর্কোন্নয়ন ঘটতে শুরু করেছে।









Leave a reply