বাড়িতে একা পেয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ

|

কামাল হোসাইন,নেত্রকোণা

নেত্রকোণার কলমাকান্দায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এক কিশোরী। এ ঘটনায় বুধবার বিকালে ওই কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে ধর্ষকের বিরুদ্ধে কলমাকান্দা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। উপজেলার কৈলাটি ইউনিয়নের রঙশিংপুর গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে জানা যায়, ১৯ জানুয়ারি শনিবার দুপুরে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী কিশোরীটিকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণ করে পার্শ্ববর্তী পাইতপাড়া গ্রামের দিনমজুর সজল মিয়া। কিশোরীর দাদী ঘরে ঢুকে বিষয়টি টের পেলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। সজল মিয়া পাইতপাড়া গ্রামের মৃত ইয়াদ ফকিরের ছেলে।

কিশোরীর পিতা জানান, “আমি এক সময় দিনমজুরি করতাম। সজলও আমার সাথে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করত। সেই সুবাদে সে আমাদের বাড়িতে আসা-যাওয়া করত। গত শনিবার দুপুরে আমরা কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে সে আমার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ করে।” সজলের আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয় মাতব্বররা বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করায় থানায় অভিযোগ দিতে বিলম্ব হয়েছে বলেও জানান তিনি।

চেষ্টা করেও যে ঘটনাটি মীমাংসা করা যায়নি, তা স্বীকার করে স্থানীয় ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন দুলাল জানান, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হতদরিদ্র পরিবারের একটা মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হোক তা কেউই চায়নি। তাই সজলের পরিবারের লোকজনকে নিয়ে মীমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব হয়নি।









Leave a reply