ফরিদপুরে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজী, দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার মিঠাপুর কলেজ পাড়া এলাকায় সৌদি প্রবাসী মো. নাজিম শেখের বাড়িতে তিন ব্যক্তি অনাধিকার প্রবেশ করে চাঁদা দাবি করলে এলাকাবাসী তাদের আটক করে পুলিশে দিয়েছে। তবে পুলিশের দাবি তারা দুইজনকে আটক করেছেন।

সোমবার দিবাগত রাতে এই ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় মঙ্গলবার আলফাডাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

আটককৃতরা হচ্ছেন ফরিদপুর কোতয়ালী থানার গোয়ালচামট এলাকার হামিদ শেখের ছেলে রুবেল শেখ(২৯) ও ঝিলটুলি এলাকার জানে আলমের ছেলে নূরে আলম সজিব(৩৫)।

৩ জনের অপর জন চুয়াডাঙ্গা সিআইডি পুলিশের সদস্য আবুল কালাম।

নাজিম শেখ জানায়, সোমবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে পুলিশ পরিচয়ে তিন ব্যক্তি ঘরে প্রবেশ করে বলতে থাকে আমি বিদেশ থেকে অনেক টাকা ও স্বর্ণালংকার অবৈধভাবে নিয়ে এসেছি, অবৈধ ব্যবসা করি উল্লেখ করে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। এক পর্যায়ে তারা আমার হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে দেয়। তাদের আচার আচরণে সন্দেহ হলে পরিবারের সদস্যরা জানালা দিয়ে প্রতিবেশীদের জানায়।

পরে স্থানীয় জনতা এসে তাদের আটক করে। আটককৃতদের নিকট হ্যান্ডকাপ ও সিআইডি পুলিশের ব্যবহৃত জ্যাকেট ছিল। পরে আলফাডাঙ্গা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাদের আটক করে নিয়ে যায়।

এদিকে তিন জনকে আটক করার কথা অস্বীকার করেছে পুলিশ। আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাজমুল করিম জানান, দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে।

এই ঘটনায় ভুক্তভোগী নাজিম শেখের বাবা আ. হাকিম শেখ বাদী হয়ে আলফাডাঙ্গা থানায় রুবেল শেখ (২৯) ও নুরে আলম সজিব (৩৫) এর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৯। তারিখ ২৯/০১/২০১৯।

তিনি জানান, আটককৃত অপর ব্যাক্তি পুলিশ সদস্য আবুল কালামের (সিআইডি, চুয়াডাঙ্গা জেলায় কর্মরত) বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তার নাম এজাহারে উল্লেখ করা হয়নি।









Leave a reply