নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ

|

টপ অর্ডারের ধারাবাহিক ব্যর্থতায় শেষ ওয়ানডেতে ৮৮ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। রস টেইলর-টম ল্যাথামদের ব্যাটিং তাণ্ডবে ডানেডিনে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬ উইকেটে ৩৩০ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়ে নিউজিল্যান্ড। সাব্বির রহমানের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির পরও বাকিদের ব্যর্থতায় ২৪২ রানে অলআউট হয় অতিথিরা।

সিরিজ হার আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। শেষ ম্যাচে লক্ষ্য ছিলো হোয়াইট ওয়াশ এড়ানো। সেই মিশনে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক মাশরাফী। ৫৯ রানে সাজঘরে ফেরেন কলিন মুনরো আর আগের ২ ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান মার্টিন গাপ্টিল। ৯২ রানের জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন হেনরি নিকোলস-রস টেইলর। ইনিংস সেরা ৬৯ করেন রস টেইলর আর নিকোলস করেন ৬৪। মিডল অর্ডারে টম ল্যাথাম যোগ করেন ৫৯। শেষ দিকে জিমি নিশাম-গ্র্যান্ড হোমের তান্ডব যোগ হলে ৩৩০ রানের বিশাল স্কোর গড়ে নিউজিল্যান্ড।

বড়ো সংগ্রহ তাড়া করতে নেমে যথারীতি ব্যর্থ বাংলাদেশের টপ অর্ডার। টিম সাউদির তাণ্ডবে মাত্র ২ রানেই সাজঘরে তামিম ইকবাল-লিটন দাস আর সৌম্য সরকার। আশা জাগিয়েও মুশফিক ১৭ আর মাহমুদুল্লাহ ১৬ রানে ফিরে গেছেন।

দলীয় ৬১ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর, সাব্বির-সাইফুদ্দিন মিলে গড়েন ১০১ রানের জুটি। ৪৪ রানে সাইফুদ্দিন ফিরলেও ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন সাব্বির। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন ৯ নম্বরে ব্যাট করতে নামা মেহেদী মিরাজ। ৩৪ বলে ৩৭ রান করেন তিনি। ব্যক্তিগত ১০২ রানে সাব্বিরের বিদায়ের সঙ্গে ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশ নিশ্চিত হয় টাইগারদের। ৬ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা কিউই পেইসার টিম সাউদি।









Leave a reply