ইজতেমা ময়দানে অনির্দিষ্টকালের জন্য সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ

|

গাজীপুর প্রতিনিধি

টঙ্গীতে দুই পর্বে বিশ্ব ইজতেমা সমাপ্তির পর ময়দানের মাল সামানা সরানোকে কেন্দ্র করে সৃষ্টি জটিলতার আশঙ্কায় ময়দান ও আশপাশের এলাকায় সব ধরণের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। বুধবার ভোর ৫টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াইএম বেলালুর রহমানের পক্ষে স্বাক্ষরিত সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধকরণ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ইজতেমা ময়দানে শান্তি শৃংখলা ও জননিরাপত্তা রক্ষার স্বার্থে অত্র মাঠ এবং মাঠের আশপাশ এলাকায় ভোর ৫টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ আইন এর (৩০ ও ৩১) ধারামূলে সকল প্রকার সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ এবং অত্র মাঠ প্রশাসনের নিকট সংরক্ষণ করা হলো। এতে আরও বলা হয়, কেউ এই আদেশ অমান্য করলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. এমদাদুল হক বলেন, ময়দানের আইনশৃংখলা বিঘ্নের আশঙ্কা  সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সবধরণের সভা-সমাবেশ বন্ধ থাকবে। এলাকার পরিস্থিতি সুষ্ঠু ও স্বাভাবিক রাখতে ময়দানের চারপাশে পুলিশ, আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ও র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ বছর তাবলিগ জামাতের মুসল্লিদের দুটি পক্ষের সংঘর্ষ ও মতবিরোধের কারণে আলাদাভাবে চারদিন ব্যাপী ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। সরকারের মধ্যস্থতায় সমঝোতার পর ১০টি শর্তে দুই পক্ষ পৃথকভাবে দুদিন করে ইজতেমা পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়। সে প্রেক্ষিতে ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রথম দুদিন মাওলানা জোবায়েরপন্থীরা এবং পরের দুদিন ১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি মাওলানা সাদপন্থীরা ইজতেমা পরিচালনা করেন।









Leave a reply