আটক ভারতীয় পাইলটদের সম্মানের সাথে ফেরত পাঠানোর আহ্বান পাকিস্তানিদের

|

পাকিস্তান সেনাবহিনীর হাতে আটক ভারতীয় পাইলটদের অভিনন্দনের সাথে সম্মানজনক ব্যবহার ও তাকে যথাযথ মর্যাদায় ভারতের হাতে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ করছে পাকিস্তানী সাধারণ জনগণ ও দেশটির রাজনীতিবিদরা।

বুধবার ঐ পাইলটরা আটক হওয়ার পরপরই বিভিন্ন টুইট বার্তায় পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ সহ পাকিস্তানের অনেকেই ভারতীয় এই পাইলটদের সাথে মর্যাদাপূর্ণ আচরণ করার পরামর্শ দেন।

পাকিস্তানি লেখিকা ফতিমা ভুট্টু বলেন, অনুগ্রহ করে এটা মনে রাখুন যে পাকিস্তানীরা আটক ভারতীয় পাইলটদের সাথে মর্যাদাপূর্ণ ব্যবহার আশা করছে।

পাকিস্তানি সাংবাদিক মনসুর আলি খান টুইট বার্তায় বলেন, আটককৃত ভারতীয় পাইলট ততটাই সম্মান আশা করে যতটা দায়িত্বরত একজন কর্মকর্তা হিসেবে মর্যাদা পান। আমরা একটি সাহসী ও সম্মানী জাতি।

আজ সকালে পাকিস্তান বিমান বাহিনীর এ্যাকশনে ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি বিমান পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভূপাতিত হলে তার দুই পাইলটকে আটক করে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এর মধ্যে এক পাইলটকে তারা গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পাকিস্তান মিলিটারী হসপিটালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে। অন্য আরেক পাইলট অভিনন্দনকে তারা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বরাতে প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় দেখা যায় যে, সেখানে আটককৃত পাইলট অভিনন্দন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের নিজের পরিচয় নিশ্চিত করছেন।

সেখানে অভিনন্দন বলেন ‘আমার নাম উইং কমান্ডার অভিনন্দন, আমার সার্ভিস নাম্বার ২৮৯৮১, আমি একজন ফ্লায়িং পাইলট, আমার ধর্ম হিন্দু। সরি স্যার এতটুকুই আমার বলার ছিল। আমি কি একটা তথ্য জানতে পারি? আমি কি পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে বন্দি?’

প্রকাশিত অন্য আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায় পাইলট অভিনন্দন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর হাত আটকের সময় উত্তেজিত কাশ্মিরি জনতা তাকে প্রহার করতে চাইলে সেনাবাহিনী উত্তেজিত জনতাকে সরিয়ে তাকে উদ্ধার করে।









Leave a reply