আল্লাহ আজ আমাদেরকে বাঁচিয়েছেন: মুশফিক-সাকিবদের প্রতিক্রিয়া

|

ক্রাইস্টচার্চের যে দুটি মসজিদে হামলার ঘটনা ঘটেছে তার একটিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ১৩ সদস্যের জুমার নামাজ আদায় করার কথা ছিল। হামলার কিছুক্ষণ পরই তারা হয়তো মসজিদের প্রবেশ করতেন। একটু সময়ের জন্য তারা রক্ষা পেয়েছেন। এমন ঘটনাকে ‘খুবই সৌভাগ্যের’ বলে বর্ণনা করছেন ক্রিকেট দলের সদস্যরা।

মুশফিকুর রহিন এক টুইটে বলেছে, ‘ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে গুলির ঘটনায় আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ আমাদেরকে আজ রক্ষা করেছেন। আমরা খুবই সৌভাগ্যবান। এধরনের ঘটনা আর জীবনে দেখতে চাই না। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।”

তামিম ইকবাল টুইট করেছেন, ‘একজন বন্দুকধারীর হাত থেকে পুরো টিম বেঁচে গেছে। ভয়াবহ অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

মুশফিক-তামিমের মতো সাকিব আল হাসানও থাকতে পারতেন দলের সঙ্গে। আঙ্গুলের ইনজুরিতে সফর থেকে ছিটকে পড়ায় সাকিব আল হাসান যেতে পারেননি নিউজিল্যান্ডে, দেশে বসে একাই করে যাচ্ছেন মাঠে ফেরার লড়াই।

হামলার খবরে যেনো বাকহারা হয়ে পড়েছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

তবু সতীর্থ খেলোয়াড়রা সবাই নিরাপদ ও সুস্থ্য থাকায় মহান আল্লাহ্‌ তা’আলার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সাকিব। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘নিউজিল্যান্ডে হওয়া হামলার ব্যাপারে কিছু বলার ভাষা নেই আমার। শুধু এটুকু বলতে চাই যে মহান আল্লাহ্‌’র প্রতি আমি কৃতজ্ঞ যে তিনি আমার ভাই, আমার সতীর্থদের রক্ষা করেছেন। আলহামদুলিল্লাহ্‌।’

ফেসবুকে ভিন্ন এক বার্তায় সাকিব লিখেন, ‘যেকোনো ধরনের জঙ্গি কর্মকাণ্ড কখনোই সমর্থনযোগ্য নয়। এটার মাত্রা আরও তীব্র হয়ে যায় যখন নামাজ পড়তে থাকা নিরীহ মানুষদের ওপর হামলা করা হয়।

আমার দোয়া থাকবে এই কাপুরোষিচিত হামলায় হতাহতদের জন্য। আমি আল্লাহ্‌কে ধন্যবাদ জানাতে চাই আমাদের দলকে এই হামলার হাত থেকে নিরাপদ রাখায় এবং সুস্থ্যভাবে হোটেলে ফেরত নেয়ায়।’









Leave a reply