মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা: টুইটারে নীরব মোদি!

|

নিউজিল্যান্ডের দুটি মসজিদে হামলার ঘটনায় বিশ্ববাসী সমবেদনা জানাচ্ছেন। বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ প্রায় সব দেশের নেতারা এই সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, কেউ সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেছেন নিজের দেশ  ও সরকারের অবস্থান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও টুইট করে নিউজিল্যান্ডবাসীকে জানিয়েছেন সমবেদনা। শুক্রবারের টুইটে হামলাটিকে ‌’ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড’ (horrible massacre) বলেও অভিতিহত করেন। যদিও শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী হামলাকারী সন্ত্রাসীর পরিচয়ের কোনো উল্লেখ এবং ঘটনাটিকে সন্ত্রাসী হামলা বলেও অভিহিত করেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সামাজিক মাধ্যমে সর্বদা সক্রিয় বলে বেশ নাম কামিয়েছেন। দেশি বিদেশি নানা বিষয়ে প্রতিদিন অনেকগুলো টুইট করে থাকেন ভারতের ক্ষমতাসীন উগ্রপন্থী হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির এই নেতা।

বিশেষ করে বিশ্বের কোথাও কোনো ধরনের সন্ত্রাসী হামলা হলে যথেষ্ট দ্রুততার সাথেই তার নিন্দা জানিয়ে থাকেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। ভারতের বাইরে কাবুল, কায়রো, নিউইয়র্ক, লন্ডন, প্যারিস- এসব শহরে বিগত বছরগুলোতে যেসব সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে তাতে টুইটারে সরব ছিলেন সাড়ে ৪ কোটি ফলোয়ার থাকা মোদি।

তার এমন কয়েকটি টুইট নিচের স্ক্রিনশটগুলোতে দেখুন–

কিন্তু আজ শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় ৪৯ জন মুসল্লি নিহত হলেও এ ঘটনা নিয়ে কোনো টুইট করেননি আগামী মাসে ভারতের জাতীয় নির্বাচনের মুখোমুখি হতে যাওয়া মোদি! যদিও এই দিনটিতে অন্যান্য বেশ কয়েকটি ইস্যুতে টুইটারে পোস্ট করেছেন।

সামাজিক মাধ্যমে তার ভক্তদের সামনে নীরব থাকলেও হামলার প্রায় ১৫ ঘণ্টা পর ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই জানাচ্ছে, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা এক চিঠিতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন নমো। মুসলিমদের নিহতও হওয়ার ঘটনা শোক প্রকাশকে তার উগ্রবাদী দল ও ভক্তরা হয়তো ভালোভাবে নেবে না (!)- হয়তো সেজন্যই এ নিয়ে এমন লুকোচুরি!

বার্তা সংস্থা এএনআই’র রিপোর্ট–









Leave a reply